বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Bangladesh-Netherlands: কলকাতার সমর্থনই ঘুরে দাঁড়ানোর মোটিভেশন বাংলাদেশের

Sampurna Chakraborty | ২৭ অক্টোবর ২০২৩ ১২ : ৪৮


আজকাল ওয়েবডেস্ক: পাঁচ ম্যাচের চারটেতেই হার। শুধু আফগানিস্তানের বিরুদ্ধে জয়। সেমিফাইনালে যাওয়ার কোনও আশাই নেই। কিন্তু সব শেষ হয়ে গিয়েছে মনে করছে না বাংলাদেশ শিবির। ডাচদের বিরুদ্ধে দু'পয়েন্ট সংগ্রহ করতে মরিয়া তাসকিনরা। তাও আবার খেলা যখন কলকাতায়। চলতি বিশ্বকাপে এখনও বিশেষ সমর্থন পায়নি বাংলাদেশ। ভিসা সমস্যার জন্য ভারতে আসতে পারেনি পাকিস্তান, বাংলাদেশের সমর্থকরা। তবে আপাতত সেই সমস্যা মিটে গিয়েছে। প্রায় আড়াই হাজার বাংলাদেশ সমর্থক শনিবার কলকাতায় হাজির থাকবে। তবে বাংলাদেশি ক্রিকেটারদের প্রধান শক্তি, কলকাতার সমর্থন। তাসকিনদের আশা, শহরের বাঙালিরা তাঁদের জন্য গলা ফাটাবে। তাই ইডেনকেই প্রত্যাবর্তনের মঞ্চ করতে চায় বাংলাদেশ। তাসকিন বলেন, 'কাল আমাদের বাঙালি ভাইরা সাপোর্ট করবে। এটাই আমাদের বাড়তি মোটিভেশন যোগাবে। কলকাতায় খেলার জন্য মুখিয়ে আছি।' এখনও হাল ছাড়ছে না বাংলাদেশ। বাকি চার ম্যাচ জিতে ভদ্রস্থ জায়গায় শেষ করতে চান তাসকিন। এর আগে ২০১৬ বিশ্বকাপে খেলে গিয়েছেন। তারপর আর ইডেনে খেলার সুযোগ আসেনি। শনিবার ডাচদের বিরুদ্ধে সেটা পুরোদমে কাজে লাগাতে চান।
তাসকিন বলেন, 'আমরা ইডেনে বেশি খেলার সুযোগ পাইনি। তবে আমি ২০১৬ টি-২০ বিশ্বকাপে খেলেছি। এখানে মূলত ব্যাটিং পিচ। যারা বড় রান করবে, তাঁদেরই জেতার সম্ভাবনা থাকবে। ভারতে বেশিরভাগ পিচই তাই। বোলারদের বিশেষ কিছু করার নেই। তবে ম্যাচ জিততে আমাদের তিন বিভাগেই ভাল খেলতে হবে। এখনও সবকিছু শেষ হয়ে যায়নি। হাতে চারটে ম্যাচ আছে। যা কিছু হতে পারে। আমরা ম্যাচ প্রতি এগোতে চাই।' নিজে পুরোপুরি ফিট নয় তাসকিন। জানান, এশিয়া কাপ থেকে কাঁধে চোট নিয়েই খেলছেন। ডান কাঁধে টেন্ডন টিয়ার আছে। ইংল্যান্ডের গিয়েছিলেন শুশ্রূষা করতে। অস্ত্রোপচার শেষ বিকল্প হলেও, সম্পূর্ণ সুস্থ হওয়ার কোনও গ্যারান্টি দেয়নি ডাক্তাররা। তাই অস্ত্রোপচার করাতে চান না। কোনওভাবে ব্যথা সামাল দিয়েই খেলা চালিয়ে যেতে চান বাংলাদেশের পেসার। শনিবার এমন একটি দলের বিরুদ্ধে তাঁরা নামবে যাদের কোনও ধারাবাহিকতা নেই। দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে বিশ্বক্রিকেটকে চমকে দিলেও, অস্ট্রেলিয়ার কাছে ৩০৯ রানে হারে ডাচরা। তবে এই ধরণের প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে খেলা আরও কঠিন বলে মনে করেন তাসকিন। তিনি বলেন, 'এরকম ম্যাচে চাপ বেশি থাকে। নেদারল্যান্ডস জায়ান্ট কিলার। দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়েছে। ম্যাচটা কঠিন হতে পারে। সবাই আশা করবে আমরা জিতব। আমাদের নিজেদের সেরাটা দিতে হবে।' আগের ম্যাচে অজিদের সামনে মুখ থুবড়ে পড়লেও প্রত্যাবর্তনের বিষয়ে আশাবাদী ডাচ অধিনায়ক স্কট এডওয়ার্ডস। জেতার মনোভাব নিয়েই নামবে তাঁরা। পাশাপাশি কলকাতার সমর্থকদের সামনে খেলতে মরিয়া নেদারল্যান্ডস। স্কট বলেন, 'আমাদের কাছে শেষ চারটে ম্যাচই বড় ম্যাচ। আমরা দর্শকদের সামনে খেলতে উপভোগ করি। সমর্থকরা যে দলকেই সাপোর্ট করুক না কেন, আমরা স্টেডিয়ামের পরিবেশটা উপভোগ করতে চাই।' ভারতীয় বংশোদ্ভুত বিক্রমজিৎ সিংয়ের প্রশংসা করলেন স্কট। 

ছবি: অভিষেক চক্রবর্তী



বিশেষ খবর

নানান খবর

Charlie Chaplin Birthday 2024 #charliechaplin #birthday #BirthAnniversary #aajkaalonline

নানান খবর

সোশ্যাল মিডিয়া