বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Kolkata Derby: পরিত্যক্ত ডার্বি, সিদ্ধান্ত ঠেলে দেওয়া হল লিগ সাব কমিটির কোর্টে

Sampurna Chakraborty | ৩০ নভেম্বর ২০২৩ ১১ : ৩৮


আজকাল ওয়েবডেস্ক: শেষপর্যন্ত ভেস্তে গেল ডার্বি। মোহনবাগান দল না নামানোয় হল না বহু চর্চিত বড় ম্যাচ। ডার্বি পরিত্যক্ত ঘোষণা করা হয়। একঘন্টা অপেক্ষা করার পর সিদ্ধান্ত জানিয়ে দেয় ম্যাচ কমিশনার। সুনন্দ কুমার বসু বলেন, "নিয়ম অনুযায়ী ম্যাচ সাসপেন্ড করতে হলে প্রথমে ৩০ মিনিট অপেক্ষা করতে হয়। তারপরও না হলে আরও ৩০ মিনিট। মোট একঘন্টা অপেক্ষা করার পর ম্যাচ পরিত্যক্ত করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। ওয়াকওভার নিয়ে আমরা কিছু বলতে পারব না।"

এদিন ইস্টবেঙ্গল নৈহাটি স্টেডিয়ামে পৌঁছে ওয়ার্ম আপেও নামে। কিন্তু দল পাঠায়নি মোহনবাগান। স্টেডিয়াম ফাঁকা। একজন সমর্থকও ছিল না গ্যালারিতে। নৈহাটি স্টেডিয়ামের গেটের বাইরে লাল হলুদ জার্সি পড়ে একজন সমর্থককে দেখা যায়। তবে প্রচুর পুলিশ মোতায়ন করা ছিল। এর আগে একবার পিয়ারলেসের বিরুদ্ধে দল নামায়নি ইস্টবেঙ্গল। কিন্তু ডার্বিতে এই ধরনের ঘটনা কোনওদিন ঘটেনি। এদিন আইএফএ যে টিম লিস্ট দেয় তাতে ইস্টবেঙ্গলের প্লেয়ারদের নাম থাকলেও একটা দিক পুরো ফাঁকা ছিল।

লিস্টে মোহনবাগান সুপার জায়ান্ট লেখা থাকলেও ফুটবলারদের নাম ছিল না। ম্যাচের নিয়ম অনুযায়ী ওয়ার্ম আপ করে ইস্টবেঙ্গল দল। মোহনবাগানের জন্য একঘন্টা অপেক্ষা করা হয়। তারপর জানিয়ে দেওয়া হয় সিদ্ধান্ত। 
মোহনবাগান সুপার জায়ান্ট কর্তৃপক্ষের দাবি, তাঁরা কখনই বলেনি, ডার্বি খেলবে না। ২৪ নভেম্বরের মধ্যে মোহনবাগানের কলকাতা লিগের সব ম্যাচ করে ফেলার অনুরোধ জানানো হয়েছিল। কিন্তু সেটা করেনি আইএফএ। বৃহস্পতিবার মোহনবাগান সুপার জায়ান্টের এক মুখপাত্র বলেন, "আমাদের পক্ষ থেকে সাতটা চিঠি দেওয়া হয়েছিল। ২৫ নভেম্বর রাত সাড়ে সাতটায় ডার্বির বিষয়ে জানায় আইএফএ। আমরা চিঠি দিয়ে জানিয়েছিলাম, ২৪ নভেম্বরের মধ্যে আমাদের সব ম্যাচ শেষ করে দিতে। কিন্তু সেটা হয়নি। ইচ্ছাকৃতভাবে ৩০ তারিখ ম্যাচ ফেলা হয়েছে। কখনো ফ্রি টিকিটে ডার্বি খেলা হয়নি। কলকাতার বাইরেও কখনও হয়নি। সেখানে ১২ হাজারের স্টেডিয়ামে খেলা ফেলেছে। কোনও টিকিট চাপা হয়নি। নিরাপত্তার কথা জানতে চেয়ে আমরা চিঠি দিয়েছিলাম। গোটা ঘটনাই লজ্জাজনক। আমরা ডার্বি খেলতে চেয়েছিলাম। কিন্তু আইএফএ সিদ্ধান্তে অনড় ছিল। আমাদের কোনও চিঠিতে বলা নেই যে আমরা খেলব না। পুরো দল নিয়ে আমরা ডার্বি খেলতে চেয়েছিলাম। ভবানীপুর, ডায়মন্ড হারবার, খিদিরপুর ম্যাচে আমরা ওয়াকওভার পেয়েছি। কিন্তু আমরা কত পয়েন্ট পেয়েছি এখনও জানানো হয়নি।" ডার্বিতে দল না নামানোর জন্য কি শাস্তির মুখে পড়তে হবে মোহনবাগানকে? সিদ্ধান্ত ঠেলে দেওয়া হয়েছে লিগ সাব কমিটির কোর্টে। এদিকে মোহনবাগান কোনও আইনি পদক্ষেপ নেবে কিনা সেটা এখনও জানা যায়নি। 



বিশেষ খবর

নানান খবর

রজ্যের ভোট

নানান খবর

সোশ্যাল মিডিয়া