রবিবার ১৪ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Gold price: এ বছর সোনার দাম বাড়তে পারে

Riya Patra | ০৪ জানুয়ারী ২০২৪ ০৬ : ২৩


সুশান্ত কুমার সান্যাল: বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ২০২৪ সালে বাড়তে চলছে সোনার দাম। অন্তত বছরের প্রথম অর্ধে এই পরিস্থিতি বজায় থাকবে বলেই ধারণা বিশ্ব বাজারের বিশেষজ্ঞদের। তাই যাঁরা এবছরে কোনও অনুষ্ঠান বা বিশেষ প্রয়োজনে সোনা কেনার কথা ভাবছেন, তাঁরা একটু বাজারের দিকে নজর রাখবেন। আর সোনায় বিনিয়োগের কথা মাথায় থাকলে যথেষ্ট সম্ভাবনা রয়েছে এই মুহূর্তে।
বিশ্ববাজারের হিসেব অনুযায়ী ২০২৩ সালে মোটের ওপর প্রায় ১৫ শতাংশ রিটার্ন পাওয়া গেছে সোনায় বিনিয়োগের ওপর যা ২০২০ সালের পর সর্বাধিক। তাই আশা করা যায়, নতুন বছরেও বজায় থাকবে এই রিটার্ন।
মূলত কয়েকটি বিষয়ের ওপর নির্ভর করে বাড়তে পারে সোনার দাম। প্রধানত বিশ্বের বিভিন্ন দেশের শীর্ষ ব্যাঙ্কগুলির আর্থিক নীতি, বিশেষত মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ফেডারেল রিজার্ভ। এছাড়াও রয়েছে ভূ–রাজনৈতিক সমীকরণ পরিবর্তন, ডলারের মূল্যে হ্রাস–বৃদ্ধি, বিশ্বের সার্বিক অর্থনৈতিক উন্নতি এবং বেশ কিছু বড় অর্থনৈতিক শক্তিসম্পন্ন দেশের আভ্যন্তরীণ নির্বাচন।
২০২২ থেকে একদিকে যেমন ক্রমান্বয়ে বিভিন্ন দেশের শীর্ষ ব্যাঙ্কগুলি সুদের হার বাড়িয়েছে, আবার অন্যদিকে গত ১৩ বছর ধরে এই শীর্ষ ব্যাঙ্কগুলি বজায় রেখেছে সোনা কিনে রাখার প্রবণতা। কারণ ক্রমান্বয়ে জটিল থেকে জটিলতর হয়েছে আর্থিক ব্যবস্থা।
দিনে দিনে বাড়তে থাকা মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ঋণের বোঝা চিন্তায় রেখেছে বিশ্ব অর্থনীতিকেও। পরিবর্তিত আর্থিক পরিস্থিতিতে পাল্লা দিতে সব দেশের সরকারের চোখ থেকেছে সোনায় বিনিয়োগের ওপর, লক্ষ্য যথাসম্ভব ঝুঁকি কমানো। দেশের প্রথম সারির এক আর্থিক সংবাদপত্রে প্রকাশিত খবর অনুযায়ী, ২০২৪ সালে প্রতি ১০ গ্রাম সোনার দাম পৌঁছে যেতে পারে প্রায় ৭২ হাজার টাকায়। এছাড়াও কতকগুলি অনুমানের ভিত্তিতে বলা হচ্ছে দুটো বড় বিষয়ের কথা। সম্ভবত, ২০২৪–এর দ্বিতীয় অর্ধে আসতে চলেছে আর্থিক মন্দা। এছাড়াও গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হল মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের মুদ্রাস্ফীতি কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসায় এবার সেদেশের শীর্ষ ব্যাঙ্ক সুদের হার বদলাতে চলেছে।
জানা গেছে, এবছর তিনটি ধাপে তারা এই সুদের হার অনেকটাই কমিয়ে আনবে। ওয়ার্ল্ড গোল্ড কাউন্সিল–এর মতে এই পরিবর্তিত পরিস্থিতিতে সোনার মূল্যে প্রায় ৪ শতাংশ প্রভাব পড়বে। আরেক খবর অনুযায়ী, ২০২৪ সালে জুয়েলারি ক্ষেত্রে চীনে সোনার চাহিদা বহুগুণ বৃদ্ধি পেতে চলেছে যা বিশ্বে সোনার চাহিদাকে বেশ কিছুটা বাড়িয়ে দেবে। তবে অনেকের মতে আবার এই মূল্যবৃদ্ধি না–ও ঘটতে পারে, যদি বিশ্ব অর্থনীতির উন্নতি বজায় থাকে এবং যদি মুদ্রাস্ফীতি নিয়ন্ত্রণে থাকে। ২০২৩ সালে সোনার মূল্যবৃদ্ধির পিছনে কয়েকটি বিশেষ কারণ দেখা গিয়েছিল, যেমন– সোনার চাহিদার বৃদ্ধি ঘটেছিল দুটো সময়ে অনেকটাই বেশি।
প্রথমত সিলিকন ভ্যালি ব্যাঙ্কের পতন আর দ্বিতীয়ত ইজরায়েলের ওপর হামাসের আক্রমণ। এই দুই কারণে সোনার মূল্যে বৃদ্ধি ঘটেছিল যথাক্রমে ৩ শতাংশ ও ৬ শতাংশ। তৃতীয় ত্রৈমাসিক পর্যন্ত বিভিন্ন দেশের শীর্ষ ব্যাঙ্কগুলি ৮০০ মেট্রিক টনের ওপর সোনা কিনেছিল, যা গতবারের তুলনায় প্রায় ১৪ শতাংশ বেশি। আন্তর্জাতিক মহলের অভিমত হল, ২০২৪ সালে বাড়তে চলেছে সোনার মূল্য, বিশেষত প্রথম ৬ মাসে।



বিশেষ খবর

নানান খবর

রজ্যের ভোট

নানান খবর



রবিবার অনলাইন

সোশ্যাল মিডিয়া