SNU

বুধবার ১৯ জুন ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Swasthya Sathi: ‌‌হতদরিদ্র টোটো চালকের জীবন দিল স্বাস্থ্যসাথী ‌#দক্ষিণবঙ্গ

Rajat Bose | ১৫ মে ২০২৪ ১২ : ০২


‌সাগরিকা দত্ত চৌধুরি:‌ ঝাঁ–‌চকচকে বড় বড় হাসপাতালগুলোকে ওঁরা এতদিন দূর থেকে দেখতেন। ভাবতেন, ওখানে ‘‌বড়লোক’‌দের চিকিৎসা হয়!‌ ছোট্ট একটা সরকারি কার্ড ওঁদের ভুল ভেঙে দিয়েছে। শুধু তাই নয়, এই কার্ডের দৌলতে ওরা ওই বড়লোকের হাসপাতালে চিকিৎসা করিয়ে ফিরতে পেরেছেন আপনজনের কাছে। সুস্থ হয়ে আসা হৃদ্‌যন্ত্রে হাত রেখে আজ তাই ওঁরা বলছেন, ‘আমরা মমতা ব্যানার্জির কাছে কৃতজ্ঞ। মমতা ব্যানার্জির সরকার আমাদের মতো নগন্যদেরও অনেক বড় করে দিয়েছেন।’‌ নিজেদের অভিজ্ঞতা বলতে গিয়ে চোখে জল পঞ্চাশের দোরগোড়ায় পৌঁছনো কমলেন্দু সরকার, ষাটোর্ধ্ব প্রবীণা অনিতা ঘোষের। দু’‌‌জনেরই হৃদ্‌যন্ত্রে গুরুতর সমস্যা ছিল। মৃত্যুকে কাছ থেকে দেখে ফেলেছিলেন। তখনই হৃদয় দিয়ে পাশে হাজির হয় ‘স্বাস্থ্যসাথী’‌। এই ছোট্ট সরকারি কার্ডটাই জীবনের স্পন্দন থামতে দেয়নি। সঙ্গে ‘‌বড়লোকের হাসপাতালে’‌ পঁাচতারা পরিষেবাও পেয়েছেন।
বনগাঁ পুরসভার ২২ নম্বর ওয়ার্ডের দক্ষিণ সুভাষপল্লীর বাসিন্দা কমলেন্দু সরকার। হতদরিদ্র টোটোচালক। ভেবেছিলেন, বঁাচার জন্য ঘাম রক্ত ঝরাতে ঝরাতেই জীবনটা একসময় থেমে যাবে। হৃদ্‌যন্ত্রে ৯৫ শতাংশ ব্লকেজ। কিন্তু নিভে যাওয়ার আগে জীবনের প্রদীপটা দপ্‌ করে জ্বলে উঠল এই ‘‌স্বাস্থ্যসাথী’‌র কল্যাণে। কমলেন্দুর কথায়, ‘‌স্বাস্থ্যসাথী না থাকলে বঁাচা মুশকিল ছিল।’‌
সাড়ে তিন লক্ষ টাকার চিকিৎসা পেয়ে মৃত্যুর মুখ থেকে বেঁচে ফিরেছেন ৪৯ বছরের কমলেন্দু। পেশায় টোটোচালক হলেও, নিজের টোটো নেই। অন্যের টোটো চালিয়ে দৈনিক উপার্জনের থেকে ৩০০ টাকা মালিককে দিয়ে যা বাড়তি থাকে, তাই দিয়েই কোনওরকমে সংসার চলে। সংসারে বাবা, মা, স্ত্রী ও দুই ছেলে। মাস দুয়েক আগে মুকুন্দপুর আমরি হাসপাতালে হৃদ্‌যন্ত্রের বাইপাস সার্জারির পর, ১০ দিনের মধ্যে বাড়ি ফেরেন। তারপর আচমকা শ্বাসকষ্ট শুরু হয়। বুকে জল জমে যায়। সেই সময় তপসিয়ার ফ্লেমিং হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়। ২১ দিন আইসিইউ–তে ছিলেন। হাসপাতাল থেকে ছুটি পাওয়ার পর দিন কুড়ি হল বাড়িতে এসেছেন। একটা টাকাও খরচ হয়নি তাঁর, স্বাস্থ্যসাথীর দৌলতে।
কমলেন্দুর স্ত্রী টুম্পা বললেন, ‘‌এর আগে স্বাস্থ্যসাথী কার্ডে বনগাঁর এক নার্সিংহোমে ৭০ বছরের শাশুড়ির চোখের অস্ত্রোপচার করানো হয়েছে। এখনও পর্যন্ত তিনবার কার্ডের মাধ্যমে উপকৃত হয়েছি। আমার নামেই কার্ড। আমাদের পরিবার অনেকটাই সুরক্ষিত। এত বড় রোগের এরকম বড় হাসপাতালে চিকিৎসা করানো স্বপ্নেরও বাইরে।’‌
একইভাবে বনগাঁ পুরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডের শক্তিগড় দু’‌নম্বর গেটের বাসিন্দা অনিতা ঘোষও স্বাস্থ্যসাথীর সৌজন্যে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পেরেছেন। বছরখানেক আগে গুরুতর অসুস্থ হন। হৃদ্‌যন্ত্র ৯৫.‌২ শতাংশ ব্লকেজ। ৬০ বছরের ওই প্রবীণার তখন স্বাস্থ্যসাথী কার্ড ছিল না। হাজির হন পুরসভার চেয়ারম্যান গোপাল শেঠ। তঁারই উদ্যোগে রাতারাতি স্বাস্থ্যসাথী কার্ড করে দেওয়া হয়। ১ লক্ষ ১০ হাজার ৮৩৪ টাকার চিকিৎসা হয় স্বাস্থ্যসাথীর মাধ্যমে। মেডিকা হাসপাতালে। অস্ত্রোপচার হয় তাঁর। বলতে গিয়ে চোখে জল প্রবীণার। ‘‌কীভাবে চিকিৎসা করাব, তা নিয়ে খুব চিন্তায় ছিলাম। স্বাস্থ্যসাথী কার্ড সব মুশকিল আসান করে দিল।’‌  
২২ এবং ১২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সুকুমার রায় এবং টুম্পা রায় জানান, ‘‌আমাদের এলাকায় ৯৭ শতাংশেরই স্বাস্থ্যসাথী কার্ড রয়েছে। অনেক মানুষই উপকৃত হচ্ছেন। আর কারও কোনও সমস্যা হলে পুরপ্রধান নিজের উদ্যোগে সমাধানের চেষ্টা করেন।’‌ ২২ নম্বর ওয়ার্ডের জনসংখ্যা ১০ হাজার ৭০০। ভোটার ৭ হাজারের ওপর। ১২ নম্বর ওয়ার্ডে ৫,২০০ ভোটার। প্রায় সকলেই স্বাস্থ্যসাথী উপভোক্তা। এলাকাবাসীই বলছেন, ‘‌স্বাস্থ্যসাথী আছে, তাই স্বাস্থ্য ভাল আছে।’‌‌‌‌‌‌‌












বিশেষ খবর

নানান খবর

ADD

নানান খবর

Dooars: পুড়ে ছাই হয়ে গেল ডুয়ার্সের ঐতিহ্যবাহী হলং বনবাংলো ...

Kanchenjunga Express Accident: দুর্ঘটনাগ্রস্ত মালগাড়ির সহকারি চালক এখনও জীবিত ...

Weather Update: ৭২ ঘণ্টার মধ্যে দক্ষিণবঙ্গে বর্ষা প্রবেশের সম্ভাবনা, ভারী বৃষ্টি হবে না ...

Saumitra Khan: এবার তৃণমূল নেতাকে পায়ে হাত দিয়ে প্রণাম সৌমিত্রর, রাজনৈতিক জল্পনা শুরু ...

বিধানসভা উপনির্বাচনে প্রার্থী 'না পসন্দ', বাগদায় পদত্যাগ করলেন দুই বিজেপি নেতা...

Mamata Banerjee: ‌আগের মতো রেলকে এখন আর গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে না: মমতা ...

BJP: ‌চার কেন্দ্রে উপনির্বাচন, ৪০ জন তারকা প্রচারকের তালিকা প্রকাশ বিজেপির ...

New Born Baby: সদ্যোজাত শিশু‌‌কন্যার আওয়াজে ঘুম ভাঙল স্থানীয়দের, ব্যাপারটা কী?‌ ...

Mysterious Death: ‌বারুইপুরে পড়ুয়ার রহস্যমৃত্যুতে চাঞ্চল্য ...

Padatik Express: অল্পের জন্য রক্ষা পেল পদাতিক এক্সপ্রেস...

Bandel Station: বিশ্বমানের স্টেশন হতে চলেছে ব্যান্ডেল, এখান থেকেই ছাড়বে দূরপাল্লার ট্রেন...

Reservation For Transgenders: তৃতীয় লিঙ্গের জন্য সংরক্ষণ নিশ্চিত করার নির্দেশ...

স্টেশন চত্বরে পার্কিং ঘিরে বিক্ষোভ, ধুন্ধুমার শালিমারে...

Murshidabad: মুর্শিদাবাদের গ্রামে শিয়ালের হানা, মৃত এক শিশু ...

সোশ্যাল মিডিয়া



SNU