শুক্রবার ১২ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Beauty: বোটক্স ফিলারের দিকে ঝুঁকছে এই প্রজন্ম! কোন বয়স এর জন্য আদর্শ? কী মত স্কিন স্পেশালিস্টের ?

নিজস্ব সংবাদদাতা | ০৬ ফেব্রুয়ারী ২০২৪ ১৪ : ৪৭


আজকাল ওয়েবডেস্ক: ৯ এর দশকে নিজেকে নিখুঁত করে তোলার জন্য প্লাস্টিক সার্জারির কথা ভাবতেই পারতেন না সাধারণ মানুষ। অন্যদিকে এই ডিজিটাল যুগে, কথায় কথায় বোটক্স আর ফিলারের কথা বলেন ফ্যাশনিস্তারা। সেলিব্রিটি থেকে শুরু করে প্রভাবশালীরা, সকলেই ত্বকের বয়স ধরে রাখতে ঝুঁকছেন অত্যাধুনিক অ্যান্টি-এজিং নানা ট্রিটমেন্টের দিকে। এমনকি অল্পবয়সীরাও এই বিষয়ে আগ্রহী হয়ে উঠছে চটজলদি ত্বকের সমস্যার সমাধান পেতে। সেক্ষেত্রে প্রশ্ন উঠছে কোন বয়স বোটক্স বা ফিলার করানোর জন্য আদর্শ?
কমবয়সীদের জন্য আছে "বেবি বোটক্স"! জনৈক কসমেটিক্স বিশেষজ্ঞের মতে, ছোটদের ক্ষেত্রে ট্রাডিশনাল ডোজের পরিবর্তে নিউরোমডিউলেটরস ব্যবহার করা হয়। খুব অল্প পরিমাণে নিউরোটক্সিন ব্যবহার করে ত্বকের শিথিলতা রোধ করা হয়। এই কারণেই অনেক চর্মরোগ বিশেষজ্ঞরা সুপারিশ করেন যে বোটক্সে আগ্রহীরা ২০ বা ৩০ বছর বয়স থেকে এই ট্রিটমেন্ট নিতে পারেন। তাঁদের দাবি , বলিরেখা গভীর হয়ে গেলে বোটক্স খুব বেশি কার্যকরী প্রভাব ফেলে না ত্বকে। অন্যদিকে, একদল মনে করেন, ছোটদের জন্য এই অল্প ডোজের বোটক্স ট্রিটমেন্টও সমস্যার কারণ হয়ে ওঠে অনেক সময়।
এ বিষয়ে কি মনে করেন ত্বক বিশেষজ্ঞরা? সোশ্যাল মিডিয়ায় ট্রেন্ডিং কিছু দেখলেই গা ভাসিয়ে দেয় এই প্রজন্ম। থেরাপিস্টের দাবি, আগে জেনে নেওয়া উচিত, ত্বকে যে সমস্যা তৈরি হয়েছে তার জন্য বোটক্স কতটা কার্যকরী। অনেক ক্ষেত্রে এই সব সমস্যা হায়ালুরোনিক ফিলার দিয়েই সমাধান হয়ে যায়। তাই যেকোনও ট্রিটমেন্ট করানোর আগে ডাক্তারের পরামর্শ নেওয়া খুবই গুরুত্বপূর্ণ।



বিশেষ খবর

নানান খবর

রজ্যের ভোট

নানান খবর

সোশ্যাল মিডিয়া