বুধবার ১৭ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Pakistan Team: আমাদের একনম্বর ব়্যাঙ্কিং দিয়ে বিচার করা যাবে না, দাবি পাকিস্তানের কোচের

Sampurna Chakraborty | ৩০ অক্টোবর ২০২৩ ১৬ : ৫৯


সম্পূর্ণা চক্রবর্তী: টানা চার ম্যাচে হার। ব্যাকফুটে বাবর আজমরা। সেমিফাইনালের আশা কার্যত নেই। কিন্তু অঙ্কের বিচারে এখনও টিকে আছে পাকিস্তান। সেই আশা জিইয়ে রাখতে মঙ্গলবার ইডেনে বাংলাদেশের বিরুদ্ধে জিততেই হবে। হারলেই বিদায়। সোমবার তারই চূড়ান্ত মহড়া সারে গ্রিন আর্মি। বাবরদের আত্মবিশ্বাস যোগাচ্ছে ইডেনের পরিসংখ্যান। কলকাতায় একমাত্র ইন্ডিপেন্ডেন্স কাপে শ্রীলঙ্কার বিরুদ্ধে হেরেছিল পাকিস্তান। মঙ্গল রাতেও কি সেই রেকর্ড অব্যাহত থাকবে? বাবরদের বর্তমান ফর্মের বিচারে হলফ করে সেটা বলা যাচ্ছে না। বিশ্বকাপের আগে আইসিসি ব়্যাঙ্কিংয়ে একনম্বরে ছিল পাকিস্তান। অন্যতম ফেভারিটও ছিল। সেখান থেকে শুধু তিন নম্বরেই নেমে যাওয়া নয়, বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে যাওয়া কঠিন হয়ে গিয়েছে পাকিস্তানের। কিন্তু হঠাৎ এমন হাল হল কেন দলের? সাংবাদিক সম্মেলনে এসে তার ব্যাখ্যা দেন পাকিস্তানের হেড কোচ। গ্রান্ট ব্র্যাডবার্ন বলেন, 'আমাদের আইসিসি ব়্যাঙ্কিং দিয়ে বিচার করা যাবে না। আমরা ভারতের বিরুদ্ধে খেলার সুযোগ পাই না। অন্যন্য ভাল দলগুলোও পাকিস্তানে আসে না খেলতে। তাই কঠিন পরীক্ষার সামনে আমাদের পড়তে হয় না। তাই বাস্তবাদী হতে হবে। তবে একইসঙ্গে টানা চার ম্যাচে হার দিয়েও আমাদের বিচার করা উচিত নয়। এর ভিত্তিতে আমাদের মাপা উচিত না। প্রত্যেক ম্যাচের জন্যই আমরা হোমওয়ার্ক করে নামছি। ভাল ক্রিকেট খেলে দর্শকদের আনন্দ দেওয়ার চেষ্টা করছে ক্রিকেটাররা।' 

প্রথম দুটো ম্যাচে জেতার পর ভারতের কাছে হার। তারপর থেকে আর জয়ের মুখ দেখেনি পাকিস্তান। এটাই কি মনোবল ভেঙে দিয়েছে বাবরদের। তেমন মনে করেন না পাকিস্তানের হেড কোচ। তবে ১ লক্ষ ৩০ হাজার দর্শকের সামনে খেলতে যে তাঁরা অভ্যস্ত নয় সেটা মেনে নিলেন। ব্র্যাডবার্ন বলেন, 'ভারতের বিরুদ্ধে ১ লক্ষ ৩০ হাজার সমর্থকের সামনে খেলতে হয়েছে। এর আগে এই অভিজ্ঞতা ছিল না ক্রিকেটারদের। তারওপর আমরা বিদেশের মাটিতে খেলছি। প্রত্যেকবার নতুন মাঠ, নতুন পরিবেশ, নতুন পিচ। এর আগে ভারতে খেলেনি আমাদের ক্রিকেটাররা। তবে আশা করছি শেষ তিন ম্যাচে আমরা ভাল ক্রিকেট উপহার দিতে পারব।' পাকিস্তানের ক্রিকেটাররা আইপিএল খেলে না। এর জন্য কি কোনও অসুবিধা হচ্ছে? মানতে রাজি নন বাবরদের হেড কোচ। তবে জানান, পাকিস্তানের বোলিং সুইং নির্ভরশীল। কিন্তু এখানকার পিচে বিশেষ সুইং হচ্ছে না। যার ফলে পেসারদের কার্যকারিতা কমে গিয়েছে। আগের ম্যাচে দক্ষিণ আফ্রিকার কাছে ১ রানে হার এখনও মেনে নিতে পারছে না পাকিস্তান শিবির। দলের হেড কোচ মনে করেন, শেষ পাঁচ ওভারে ব্যাটিং ব্যর্থতাই পার্থক্য গড়ে দিয়েছে। ব্র্যাডবার্ন বলেন, 'চেন্নাইয়ে খেলা কঠিন। তাও আমরা যথেষ্ট ভাল খেলছিলাম। টপ চার ব্যাটারদের মধ্যে একজন কেউ ৪০ ওভার পর্যন্ত টিকে গেলে আমরা ম্যাচটা জিতে যেতাম। আমাদের ২০-৩০ রান কম হয়। শেষ পাঁচ ওভারে আমরা মাত্র ১১ রান তুলি। এটাই পার্থক্য গড়ে দেয়। সেদিন ম্যাচটা জিতলে সবকিছু বদলে যেত।' তবে টানা চার হারেও আশা ছাড়ছেন না তিনি। বাকি তিন ম্যাচ জিতে অন্য দলের রেজাল্টের অপেক্ষায় থাকতে চান। এখনও মিরাকলের সম্ভাবনা দেখছেন বাবরদের হেডস্যার। 

ছবি: অভিষেক চক্রবর্তী



বিশেষ খবর

নানান খবর

Charlie Chaplin Birthday 2024 #charliechaplin #birthday #BirthAnniversary #aajkaalonline

নানান খবর

সোশ্যাল মিডিয়া