বৃহস্পতিবার ১৮ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Tollywood: পার্নোকে ‘কাজের মেয়ে’র সঙ্গে গুলিয়ে ফেলল হলিউড! কী জবাব দিলেন ‘বনবিবি’?

নিজস্ব সংবাদদাতা | ২৫ নভেম্বর ২০২৩ ০৮ : ৫২


অকারণ হলিউডি নায়িকার সঙ্গে তুলনা। কিচ্ছু না জেনে যা খুশি তাই বলে দেওয়া! এভাবেই অকারণে হেনস্থা হলেন পার্নো মিত্র। তাঁর অভিনীত ছবি ‘রঞ্জনা আমি আর আসব না’ তিনটি বিভাগে জাতীয় পুরস্কার পেয়েছে। পাশ্চাত্যের চোখে সেই পার্নোই নাকি ‘কাজের লোকে’র মতো দেখতে! সুপার ইউনিভার্স নামের একটি সামাজিক পাতায় "মার্ভেলস" অভিনেত্রী জেন্ডায়ার সঙ্গে পার্নোর তুলনা টানা হয়েছে। হলিউডি নায়িকা দ্বিধা নিয়ে ভারতীয় নায়িকার দিকে তাকিয়ে। শাড়ি পরা পার্নো হাসিমুখে দাঁড়িয়ে। সেই ছবিতে লেখা ‘ভারতীয় ধারাবাহিকের কাজের লোকের মতো!’ এই তুলনা দেখেই ক্ষোভে ফেটে পড়েছেন সবাই। ইতিমধ্যেই পোস্টটি ভাইরাল। নেটব্যবহারকারীদের প্রশ্ন, ‘কোনও খোঁজ না নিয়ে কী করে একজন ভারতীয় নায়িকাকে এভাবে অপমান করা হল’? জবাবি বার্তায় নায়িকা জানিয়েছেন, পরিচারিকা কোনও অসম্মানজনক কাজ নয়। তিনি এই তকমাতেও খুশি। এও জানিয়েছেন, জেন্ডায়া তাঁর পছন্দের অভিনেত্রী।



দিন দুই আগে এই পোস্ট দেখে থ শহর কলকাতা এবং পার্নোর অনুরাগীরা। হঠাৎ করেই এই ধরনের পোস্ট প্রথমে সবাইকে প্রচণ্ড বিস্মিত করেছে। তারপরেই সেই বিস্ময় তীব্র ক্ষোভে পরিণত হয়েছে। সুপার ইউনিভার্স নামক সামাজিক পাতাটি তাদের নায়িকাকে উঁচুতে তুলতে গিয়ে ভারতীয় নায়িকাকে অকারণ অপমান করেছে। পাশ্চাত্যের সাজ, শারীরিক গঠনের সঙ্গে ভারতীয় লালিত্যের তুলনা চলে না। হলিউডি নায়িকারা পাশ্চাত্যের সাজপোশাকে ঝাঁ চকচকে। আর ভারতীয় নায়িকারা সনাতনী সাজে লাবণ্যময়ী। সেই লাবণ্যের এরকম বর্ণনা দেখে চোখ কপালে সবার। তারপরেই একে একে শাণিত মন্তব্য, মন্তব্য বিভাগে ছড়িয়ে পড়েছে। কেউ লিখেছেন, ‘কাজের মেয়ে হওয়া কোনও দোষের নয়। কিন্তু যাঁকে এই তকমা দেওয়া হল তাঁর সম্বন্ধে খোঁজ নিলেই জানা যাবে, তিনি ভারতের প্রথম সারির নায়িকা।’ কেউ কেউ এমন প্রশ্নও তুলেছেন, পার্নো কি তা হলে বর্ণবৈষম্যের স্বীকার?



কী বলছেন পার্নো? আলাদা করে কথা বলতে নায়িকা নারাজ। সামাজিক পাতায় নিজের মতামত জানিয়েছেন। লিখেছেন, ‘আমার কাছে "দাসী" শব্দটি অবমাননাকর নয়, বরং সম্মানের। আমি এই পেশার প্রতি অপরিসীম শ্রদ্ধা রাখি। আমার চোখে এটি অন্য যে কোনও পেশার মতোই মূল্যবান। কারণ, এঁদের ছাড়া জীবন প্রায় অসম্পূর্ণ।’ তারপরে তাঁর দাবি, এই পোস্টের প্রেক্ষাপটকে উপেক্ষা করা যায় না। কারণ, এটি সূক্ষ্মভাবে শ্রেণীবাদ, দুর্ব্যবহার এবং এমনকি বর্ণবাদের ইঙ্গিত দেয়। তারপরেও তিনি একে ইতিবাচক ভাবেই দেখতে চাইছেন। পাশাপাশি, ধন্যবাদ জানিয়েছেন সেই সব মানুষদের যাঁরা তাঁকে সমর্থন জানিয়েছেন। এও মত, সারাক্ষণ একা লড়াই সম্ভব নয়। তখন পাশে বহু জনের সান্নিধ্যের প্রয়োজন পড়ে। সেটা তিনি এখন পাচ্ছেন। তার জন্য নিজেকে ভাগ্যবতী মনে করছেন। কারণ, এত সমর্থনও তিনি আশা করেননি।

 



বিশেষ খবর

নানান খবর

Charlie Chaplin Birthday 2024 #charliechaplin #birthday #BirthAnniversary #aajkaalonline

নানান খবর

সোশ্যাল মিডিয়া