বৃহস্পতিবার ২৫ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

MI-RR: হারের হ্যাটট্রিক মুম্বইয়ের, বোল্ট-চাহালের যুগলবন্দিতে একনম্বরে রাজস্থান

Sampurna Chakraborty | ০১ এপ্রিল ২০২৪ ২৩ : ১৪


আজকাল ওয়েবডেস্ক: হারের হ্যাটট্রিক। ব্যর্থতা অব্যাহত মুম্বইয়ের। সোমবার ওয়াংখেড়েতে রাজস্থান রয়্যালসের কাছে ৬ উইকেটে হারল হার্দিক পাণ্ডিয়ার দল। গুজরাট, হায়দরাবাদের পর এবার রাজস্থান। প্রথমে ব্যাট করে নির্ধারিত ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৫ রান তোলে মুম্বই। ২৭ বল বাকি থাকতে ১৫.৩ ওভারে ৪ উইকেটের বিনিময়ে জয়সূচক রানে পৌঁছে যায় রাজস্থান। আরও একটি গুরুত্বপূর্ণ ইনিংস রিয়ান পরাগের। ৩৯ বলে ৫৪ রানের ইনিংস অনায়াসেই সঞ্জু স্যামসনদের লক্ষ্যে পৌঁছে দেয়। রোহিত শর্মাকে সরিয়ে হার্দিককে অধিনায়ক করার পর থেকে শুধুমাত্র ব্যর্থতাই সঙ্গী মুম্বইয়ের। চাপে পড়ে এদিন শুরুতেই যশপ্রীত বুমরাকে বল দেন হার্দিক। কিন্তু ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে অহেতুক পরীক্ষা নিরীক্ষা করেন। যার খেসারত দিতে হয়। মুম্বইয়ের হারের পেছনে প্লেয়ারদের পারফরম্যান্স ছাড়াও হার্দিকের‌ ভুল সিদ্ধান্তও অন্যতম কারণ। ৩ ম্যাচের পর টেবিলের তলানিতে মুম্বই। তাঁরাই একমাত্র দল যারা এখনও কোনও ম্যাচ জেতেনি। অন্যদিকে পরপর তিন ম্যাচ জিতে একনম্বরে রাজস্থান।  

টসে জিতে মুম্বইকে ব্যাট করতে পাঠান সঞ্জু স্যামসন। তাসের ঘরের মতো ভেঙে পড়ে ব্যাটিং লাইন আপ। শুরুতেই ধাক্কা। টপ ফরের মধ্যে তিনজন ফেরেন শূন্য রানে। মুম্বইয়ের ব্যাটিং মেরুদন্ড ভেঙে দেন প্রাক্তনী। প্রথম ওভারেই ব্যাক টু ব্যাক বলে জোড়া উইকেট তুলে নেন ট্রেন্ট বোল্ট। নিজের প্রথম বলেই শূন্যতে উইকেটের পেছনে ধরা পড়েন রোহিত শর্মা। পরের বলেই আউট নমন ধির (০)। সঙ্গে সঙ্গে তাঁর বদলে ইম্প্যাক্ট প্লেয়ার হিসেবে ডেওয়াল্ড ব্রেভিসকে নামানো হয়। কিন্তু তিনিও ফেরেন প্রথম বলেই। মাত্র ১ রানে জোড়া উইকেট হারায় মুম্বই। ৩.৩ ওভারে ২০ রানে ৪ উইকেট পড়ে যায়। পঞ্চম উইকেটে ৫৬ রান যোগ করেন হার্দিক এবং তিলক। মনে হয়েছিল তাঁদের পার্টনারশিপে ম্যাচে ফিরবে মুম্বই। কিন্তু ৬টি চারের সাহায্যে ২১ বলে ৩৪ করে আউট হন হার্দিক। ২৯ বলে ৩২ করেন তিলক বর্মা। এই দু"জন ছাড়া একমাত্র টিম ডেভিড (১৭) দু"অক্ষরের রানে পৌঁছয়। ডাহা ব্যর্থ মুম্বইয়ের ব্যাটাররা। ২০ ওভারের শেষে ৯ উইকেট হারিয়ে ১২৫ রান করে মুম্বই ইন্ডিয়ান্স। দুর্দান্ত ট্রেন্ট বোল্ট এবং যুজবেন্দ্র চাহাল। প্রথমজন ২২ রানে ৩ উইকেট নেন। মাত্র ১১ রানে ৩ শিকার রাজস্থানের স্পিনারের। জোড়া উইকেট নেন নান্দ্রে বার্গার। 

রান তাড়া করতে নেমে সমস্যায় পড়তে হয় রাজস্থানকেও। অল্প রান হলেও সঞ্জুর দলের রান চেজ মসৃণ হয়নি। রাজস্থানেরও টপ অর্ডার ব্যর্থ। ৪৮ রানের মধ্যে ৩ উইকেট হারায় রয়্যালসরা। জোড়া চার মেরে শুরু করলেও ১০ রানে আউট হন যশস্বী জয়েসওয়াল। রান পাননি সঞ্জু স্যামসন (১২) এবং জস বাটলারও (১৩)। আবার রিয়ান পরাগের ওপর নির্ভরশীল রাজস্থান। চতুর্থ উইকেটে ৪০ রান যোগ করেন পরাগ এবং অশ্বিন। ১৪তম ওভারে ১০০ রান সম্পূর্ণ করে রাজস্থান। শেষদিকে অনায়াসেই জয়ে পৌঁছে যায় রয়্যালসরা। ব্যাক টু ব্যাক অর্ধশতরান রিয়ান পরাগের। ৩৯ বলে ৫৪ রানে অপরাজিত থাকেন। ইনিংসে ছিল ৩টি ছয়, ৫টি চার। আকাশ মাদওয়াল ৩ উইকেট নিলেও এত অল্প টার্গেট ডিফেন্ড করা সম্ভব ছিল না মুম্বইয়ের পক্ষে। 



বিশেষ খবর

নানান খবর

রজ্যের ভোট

নানান খবর

সোশ্যাল মিডিয়া