বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Hooghly: উৎসব মিটতেই শুরু কার্নিভালের প্রস্তুতি

Pallabi Ghosh | ২৫ অক্টোবর ২০২৩ ০৯ : ২৩


মিল্টন সেন, হুগলি: নির্বিঘ্নে মিটেছে শারদ উৎসব। প্রতিমা নিরঞ্জন পর্ব এখনও মেটেনি, তার মধ্যেই শুরু হয়েছে কার্নিভালের তৎপরতা। মঙ্গলবার সকাল থেকে চলেছে সিঁদুর খেলা, সঙ্গে প্রতিমা নিরঞ্জন পর্ব। চন্দননগর কমিশনারেটের তরফে আগে থেকেই পুজো উদ্যোক্তাদের নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছে প্রতিমা নিরঞ্জনের সময় এবং ঘাট। সময় অনুযায়ী চুঁচুড়া থেকে উত্তরপাড়া পর্যন্ত একাধিক ঘাটে চলেছে প্রতিমা নিরঞ্জন পর্ব। প্রশাসনের নির্দেশ অনুযায়ী বুধবারের মধ্যেই সমস্ত প্রতিমা নিরঞ্জন করে দেওয়া হবে। বৃহস্পতিবার সাড়ম্বরে কার্নিভাল অনুষ্ঠিত হবে জেলা সদর চুঁচুড়ায়। এদিন সকালে হুগলি পুলিশ লাইনে সাংবাদিক সম্মেলনে কার্নিভালের রুট ম্যাপ প্রকাশ করেন ডিসি হেডকোয়ার্টার ঈশানী পাল। তিনি জানিয়েছেন, কারবালা মোর থেকে শোভাযাত্রা শুরু হয়ে পিপুলপাতি, বকুলতলা, বড় বাজার হয়ে অন্নপূর্ণা ঘাটে হবে প্রতিমা নিরঞ্জন। তিনি আশাবাদী গত বছরের অভিজ্ঞতাকে কাজে লাগিয়ে এই বছর কার্নিভালকে আরও সুন্দর দৃষ্টি নন্দন করে তোলা হবে। এবছর মোট ১৮ টি বারোয়ারী কার্নিভালে অংশ গ্রহণ করবে। কার্নিভাল সুষ্ঠ পরিচালনার লক্ষে কমিশনারেটের ট্রাফিক বিভাগের তরফে শহরের একাধিক রাস্তায় নো-এন্ট্রি করা হয়েছে। পথচারীদের কথা মাথায় রেখে কিছু রাস্তাকে অন্যত্র ঘুরিয়ে দেওয়া হয়েছে। এছাড়া দর্শনার্থীদের নিরাপত্তা এবং কার্নিভাল সুষ্ঠ পরিচালনা করতে নিযুক্ত থাকবে এক হাজার পুলিশ কর্মী। নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকছেন ডেপুটি কমিশনার পদ মর্যাদার ৩ জন এবং অতিরিক্ত ডিসি মর্যাদার ২ জন আধিকারিক। এছাড়া ডিএসপি পদ মর্যাদার ১০ জন আধিকারিক, ১৯ জন ইন্সপেক্টর এবং এক শতাধিক মহিলা পুলিশ। থাকছে অ্যান্টি ক্রাইম টিম, সাদা পোশাকে পুলিশ কর্মী, এইচ আর এস এফ, ডিডি এবং এসবির টিম। গঙ্গার ঘাটে প্রস্তুত থাকছেন বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তরের কর্মীরা। প্রস্তুত রাখা হবে অ্যাম্বুল্যান্স, অগ্নিনির্বাপণ দপ্তরের কর্মীদের। এছাড়াও নজরদারি চালানো হবে সিসি ক্যামেরা এবং স্বয়ংক্রিয় ড্রোনের মাধ্যমে। শুধু কার্নিভাল রুট নয় নজরদারি চালানো হবে গোটা শহরেই। এদিন সাংবাদিক সম্মেলনে উপস্থিত ছিলেন কমিশনারেটের উচ্চপদস্থ আধিকারিকরা।



বিশেষ খবর

নানান খবর

রজ্যের ভোট

নানান খবর

সোশ্যাল মিডিয়া