বুধবার ২৪ এপ্রিল ২০২৪

সম্পূর্ণ খবর

Jagadhatri Pujo: পুরোদস্তুর নারী বসনে পুরুষদের দেবীবরণ! বিরল দৃশ্য ভদ্রেশ্বরে

Rajat Bose | ২৩ নভেম্বর ২০২৩ ১০ : ৪৫


মিল্টন সেন, হুগলি: মহিলারা ঠাকুর বরণ করেন, সিঁদুর খেলেন। যে কোনও পুজোয় এই দৃশ্য সকলের কাছেই খুব পরিচিত। তবে মহিলাদের বসনে পুরুষরা ঠাকুর বরণ করছেন, আবার সিঁদুরও খেলছেন। তাও আবার ঘোমটা টেনে। এই ছবি বিরল। ২৩১ বছর ধরে প্রাচীন এই প্রথাই অব্যাহত ভদ্রেশ্বর তেঁতুলতলা জগদ্ধাত্রী বারোয়ারিতে। বৃহস্পতিবার লাল পাড়ের সাদা শাড়ি, মাথায় ঘোমটা দিয়ে পুরোদস্তুর নারী বসনে পুরুষদের দেবীবরণের দৃশ্য দেখতে তেঁতুলতলায় ভিড় জমে হাজার হাজার মানুষের। কথিত আছে, ইংরেজ আমলে ভদ্রেশ্বরের সুর পরিবারের পুজো হিসেবেই পরিচিত ছিল এই পুজো। সুর পরিবারের প্রধান দাতারাম সুরের হাতেই পুজোর সূচনা। তবে সুর পরিবারের পরবর্তী প্রজন্ম আর এই পুজো চালিয়ে যাওয়ার আগ্রহ দেখায়নি। ফলে প্রাচীন এই পুজো বন্ধ হয়ে যাওয়ার উপক্রম হয়। তখন স্থানীয় বাসিন্দাদের উদ্যোগে ওই পুজো বারোয়ারি পুজোর রুপ নেয়। পুজো বারোয়ারি হলেও সুর পরিবারের প্রাচীন আচার বা রীতি অব্যাহত থাকে। ইংরেজ শাসনকালে ভদ্রেশ্বর গৌরহাটি এলাকায় তখন ইংরেজ ছাউনি ছিল। সমগ্র অঞ্চল ছিল জঙ্গলে ভরা। চারিদিকে ঘুরে বেড়াত গোড়া সৈনিকের দল। ফলে মহিলাদের ক্ষেত্রে ঘরের বাইরে নিরাপত্তার অভাব ছিল যথেষ্টই। তাই তৎকালীন সময়ে মহিলারা খুব একটা বাড়ি থেকে বেরোতেন না। তাঁরা থাকতেন বাড়ির অন্দরমহলে। তাই শুরুতে বারোয়ারি জগদ্ধাত্রী পুজোর যাবতীয় আচার সবই সামাল দেন পুরুষরাই। প্রথা অনুযায়ী দশমীর দিন সকালে সুর পরিবারের মহিলারা দেবীবরণ করতেন। কিন্তু বাড়ির বাইরে বেরিয়ে পরিবারের মহিলাদের প্রতিমা বরণ করার ক্ষেত্রে সমস্যা দেখা দিল। পাশাপাশি পুরাতন সেই প্রথা বজায় রাখা নিয়ে প্রশ্ন উঠল। প্রতিমা বরণ কি তাহলে বন্ধ করে দেওয়া হবে? তৎকালীন সময়ে প্রাচীন রীতি অক্ষুন্ন রাখতে এগিয়ে আসেন স্থানীয় পুরুষরা। তাঁরা তখন মহিলাদের মত শাড়ি পড়ে মাথায় ঘোমটা দিয়ে নারী সাজে মা জগদ্ধাত্রীকে বরণ করেন। তার পর থেকে আজও ভদ্রেশ্বরের তেঁতুলতলা সার্বজনীন জগদ্ধাত্রী পুজোয় সেই প্রথাই অক্ষুন্ন। 



বিশেষ খবর

নানান খবর

রজ্যের ভোট

নানান খবর

সোশ্যাল মিডিয়া