নবাব সিরাজ-‌উদ-‌দৌল্লা তখন কলকাতা আক্রমণ করতে আসছেন। তাঁর সেনাবাহিনীর আসার সুবিধে করতে কাকদাড়ির রাজা মাধবচন্দ্র ঘোষ ধানের তুষ দিয়ে একটা খাল বুজিয়ে দিয়েছিলেন। পরবর্তীকালে এই মাধবচন্দ্র হাওড়ায় চলে আসেন এবং তাঁরই হাতে পত্তন হয় উত্তর হাওড়ার ১ নম্বর ক্ষীরোদচন্দ্র ঘোষ রোডের ঘোষ পরিবারের পুজোর। মাধবচন্দ্রের ছেলে ক্ষীরোদচন্দ্র ঘোষ। এবার ২১৯ বছরে পা দিল চার পুরুষের এই পুজো। লোহার সিংহাসনে পূজিত দেবীমূর্তির সব অস্ত্র সোনা বা রুপোয় তৈরি। পুজো উপলক্ষে ঘোষবাড়িতে এক সময়ে পা রেখেছিলেন সস্ত্রীক দেশবন্ধু চিত্তরঞ্জন দাশ। এসেছেন বীরেন্দ্রকৃষ্ণ ভদ্র, আমজাদ আলি খান, রামকুমার চট্টোপাধ্যায়, দ্বিজেন মুখোপাধ্যায়ের মতো বিশিষ্টজন। তবে শুধু পূজার্চনাই নয়, অন্যবারের মতো এবছরও এই পুজোয় সপ্তমী, অষ্টমী ও নবমী জুড়ে থাকছে নানা সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানও, জানালেন পরিবারের পক্ষে শুভজিৎ ঘোষ।‌

জনপ্রিয়

Back To Top