মহাত্মা গান্ধীর হঠাৎ–‌মৃত্যু ৩০ জানুয়ারি ১৯৪৮। তাঁর প্রয়াণের এক পক্ষকালের মধ্যেই প্রকাশিত হয় একটি অনন্য জীবনচরিত ‘‌আমাদের বাপুজী’‌। লেখক প্রখ্যাত ইতিহাসবিদ সুধীরকুমার মিত্র। গান্ধীজির অন্যান্য জীবনীর সঙ্গে সুধীরকুমারের করা বইটির মৌলিক পার্থক্য আছে। তা হল, সমকালীনতা। ইতিহাসবিদ সুধীরকুমার মিত্রকে এখন অনেক বাঙালিই চেনেন না। অথচ স্বয়ং রবীন্দ্রনাথ ওঁর ‘‌জেজুরের ইতিহাস’‌ পড়ে ভূয়সী প্রশংসা করেছিলেন। ওঁর মৌলিক গবেষণাগ্রন্থ ‘‌হুগলি জেলার ইতিহাস ও বঙ্গসমাজ’ পড়ে অভিভূত হন আচার্য সুনীতিকুমার চট্টোপাধ্যায়। গান্ধীর ১৫০তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে ‘‌আমাদের বাপুজী’‌ প্রকাশ করল পারুল প্রকাশন। পল্লব মিত্রের সুসম্পাদনায়। খুব জরুরি কাজ। এতে গান্ধীর জীবনী ছাড়াও ওঁকে নিয়ে লেখা নজরুল, অমিয় চক্রবর্তী, জীবনানন্দ‌, হুমায়ুন কবির, প্রেমেন্দ্র মিত্র, বুদ্ধদেব বসু প্রমুখের কবিতা বইটির বড় আকর্ষণ। আরে আছে দুষ্পাপ্র‌্য কিছু ছবি। সঙ্গে ছবিতে গান্ধীজির সঙ্গে লক্ষ্মীদাস। 

জনপ্রিয়

Back To Top