Delhi: ‌সপ্তাহান্তের কারফিউ উঠছে না রাজধানীতে, সরকারের সুপারিশে না লেফটেন্যান্ট গভর্নরের 

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সংক্রমণ কিছুটা নিয়ন্ত্রণে আসায় রাজধানীতে সপ্তাহ শেষের কারফিউ শিথিল করতে চেয়েছিল অরবিন্দ কেজরিওয়াল সরকার।

শুক্রবার এই সংক্রান্ত নির্দেশিকাটি অনুমোদনের জন্য লেফটেন্যান্ট গভর্নর অনিল বৈজলের দপ্তরে পাঠানোও হয়। কিন্তু এখনই উঠছে না দিল্লিতে সপ্তাহান্তের কারফিউ। জানিয়ে দিয়েছেন বৈজল। তাঁর দপ্তরের তরফে বলা হয়েছে, ‘‌পরিস্থিতি এখনও স্বাভাবিক নয়। অতিমারি পরিস্থিতির উন্নতি হলেই কারফিউ তোলা হবে।’‌ তবে সরকারের সুপারিশ অনুযায়ী বেসরকারি অফিসে ৫০ শতাংশ কর্মী নিয়ে কাজ চলতে পারে বলে জানিয়েছেন বৈজল। চলতি বছরের ১৪ জানুয়ারি দিল্লিতে দৈনিক করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৩০ হাজার পেরিয়ে গিয়েছিল। এরপরেই সপ্তাহ শেষে ৫০ ঘণ্টার কারফিউ জারি করেছিল দিল্লি সরকার।

আরও পড়ুন:‌ ফেসবুক লাইভে আর দেখা যাবে না মদন মিত্রকে, কেন?‌ 


শুক্রবার দিল্লিতে সংক্রমিত হয়েছেন ১২,৩০৬ জন। যদিও দিল্লিতে বছরের শুরুর চেয়ে এখন সংক্রমণ কমেছে। দিল্লির স্বাস্থ্যমন্ত্রী সত্যেন্দর জৈন বলেছেন, ‘‌রাজধানীর কোভিড পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে রয়েছে। দৈনিক মৃতের সংখ্যাও কমেছে।’‌ যদিও দেশে এদিন দৈনিক সংক্রমণ প্রায় সাড়ে তিন লাখের দোড়গোড়ায় পৌঁছেছে। 
এর আগে সংক্রমণ অত্যধিক মাত্রায় বৃদ্ধি পাওয়ার কারণে সপ্তাহ শেষের দিনগুলিতে কারফিউ ঘোষণা করেছিল দিল্লি সরকার। শুক্রবার রাত ১০টা থেকে সোমবার ভোর ৫টা পর্যন্ত বলবৎ থাকছে এই কারফিউ। সপ্তাহ শেষে কারফিউ চলাকালীন, শুধুমাত্র অত্যাবশ্যকীয় পণ্য সরবরাহ এবং জরুরি পরিষেবার সঙ্গে জড়িতরা এবং যাঁরা জরুরি পরিস্থিতির সম্মুখীন হচ্ছেন, তাঁরাই বাইরে যেতে পারেন। ওষুধের মতো প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ছাড়া সমস্ত দোকান বন্ধ থাকছে। এই পরিস্থিতি এখনও চলবে। 

আকর্ষণীয় খবর