আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ তিন–তিনটি চটের ব্যাগ। তার মধ্যে ভরে রাস্তার ধারে এক শিশুকন্যাকে ফেলে গেল পরিবার। উদ্দেশ্য ছিল, প্রাণে মারা। কান্না শুনে উদ্ধার করলেন পথচারীরা। শেষ পর্যন্ত বেঁচে গেল সদ্যোজাত। উত্তরপ্রদেশের মেরঠের ঘটনা।
দেশের রাজধানী থেকে ৮৫ কিলোমিটার দূরে মেরঠের রাস্তার ধারে পড়ে ছিল বস্তাটি। তার থেকে ভেসে আসছিল ক্ষীণ কান্না। শুনে পথচারীরা জড়ো হন। একের পর এক বস্তা খুলে হতবাক তাঁরা। দেখেন, সদ্যোজাত এক শিশুকন্যা। ঠান্ডায় অসুস্থ হয়ে পড়েছে। 
খবর যায় পুলিশে। পুলিশ এসে শিশুটিকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করেছে। এখন সুস্থ রয়েছে সে। খোঁজ চলছে পরিবারের। ধরা পড়লে কড়া শাস্তি হবে বলে জানিয়েছে প্রশাসন। উত্তরপ্রদেশে এ ধরনের ঘটনা নতুন নয়। গত বছর বরেইলির এক শ্মশানে মাটির হাঁড়িতে এক সদ্যোজাতকে কবর দেওয়ার চেষ্টা করছিল পরিবার। শব্দ শুনে ছুটে আসেন লোকজন। প্রাণে বাঁচে শিশুটি। 

জনপ্রিয়

Back To Top