Sand Mining: হুগলির গুপ্তিপাড়ার বানালিচরে নদীর পাড় থেকে তুলে নেওয়া হচ্ছে বালি! তদন্তের নির্দেশ

বিভাস ভট্টাচার্য: চুরি হয়ে যাচ্ছে নদীর চর। জেসিবি মেশিন দিয়ে তুলে নেওয়া হচ্ছে বালি। ইঁটভাটার প্রয়োজনে। বিপন্ন হয়ে পড়ছে নদী এবং সেইসঙ্গে পাড়ের জনবসতি। কখনও বালি আবার কখনও পাথর। হুগলির গুপ্তিপাড়ায় বারবার এই নিয়ে তৈরি হয়েছে সমস্যা। যা নিয়ে কখনও কখনও বিতর্কও তৈরি হয়েছে স্থানীয় কয়েকজন তৃণমূল কংগ্রেসের নেতা-নেত্রীর সম্পর্কে। এই নিয়ে আসরে নেমে বিতর্কের কেন্দ্রবিন্দুতে থাকা এই নেতা-নেত্রীদের সতর্কও করেছে দল। কিন্তু বালি বা পাথরের মতো প্রাকৃতিক সম্পদের লুঠ হয়ে যাওয়াটা কিন্তু আটকানো যায়নি। দিনের পর দিন জেসিবি মেসিন দিয়ে নদীর পাড় থেকে তুলে নেওয়া হচ্ছে বালি। অভিযোগ, এক শ্রেণীর অসাধু ইঁটভাটার মালিক স্থানীয় প্রশাসনের একটি অংশের সহযোগিতায় এই কাজ করে যাচ্ছে।


বেআইনিভাবে এই ধরনের বালি তুলে নেওয়ার একটি ঘটনা সদ্য সামনে এসেছে। দেখা গেছে, গুপ্তিপাড়ার বানালিচরে নদীর পাড়ে জেসিবি মেসিন দিয়ে তুলে নেওয়া হচ্ছে বালি। এলাকার মানুষের অভিযোগ, বেআইনিভাবে এই বালি তুলে নেওয়ার জন্য নদীর পাড় ভেঙে যাচ্ছে। তৈরি হচ্ছে বন্যার পরিস্থিতি। এবিষয়ে হুগলির ডিএল অ্যান্ড ডিএলআরও ভাস্কর মজুমদার Aajkaal.inকে বলেন, 'বিষয়টি সম্পূর্ণ বেআইনি। এসডি অ্যান্ড এলআরওকে বলা হয়েছে দ্রুত পদক্ষেপ নিতে।'

 

 

আরও পড়ুন: নিমতলা শ্মশানে শেষকৃত্য সম্পন্ন হল সাধন পাণ্ডের, কান্নায় ভেঙে পড়লেন মেয়ে শ্রেয়া

আকর্ষণীয় খবর