আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ঠাকুরদার স্বপ্ন পূরণ করার জন্য ৩০ লক্ষ টাকার চাকরি ছেড়ে দিয়েছিলেন। অবশেষে স্বপ্ন পূরণ হয়েছে উত্তরপ্রদেশের অনুপম মিশ্রর। সিভিল সার্ভিস পরীক্ষায় উত্তীর্ণ হয়েছেন তিনি। পেয়েছেন দ্বিতীয় স্থান। 
১০ অক্টোবর উত্তরপ্রদেশ পাবলিক সার্ভিস কমিশন ২০১৭ সালের পরীক্ষায় উত্তীর্ণদের যে তালিকা প্রকাশ করেছে, তাতে দ্বিতীয় স্থানে নাম রয়েছে প্রয়াগরাজের বাসিন্দা অনুপমের। এখন তিনি ডেপুটি কালেক্টর।
প্রয়াগরাজের নৈনির মিগ ২৯ এর বাসিন্দা অনুপম। যিনি ২০১৭ সালে পিএসসি পরীক্ষায় দ্বিতীয় স্থান পেয়েছেন। ছেলের দুরন্ত সাফল্যে আনন্দে ভাসছেন মা–বাবা। তবে নাতিকে ডেপুটি কালেক্টর হিসেবে দেখার স্বপ্ন ছিল অনুপমের ঠাকুরদার। ছোটবেলায় ঠাকুরদার এই স্বপ্নের কথা জানতেন না অনুপম। শুধু নিজের পড়াশুনা করে যেতেন। 
কম্পিউটার সায়েন্স নিয়ে বিটেক করার পর আমেরিকার একটি তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থায় কাজ পান অনুপম। চার বছর সেখানে কাজ করেছেন। বার্ষিক রোজগার ছিল ১৫ লক্ষ টাকা। কিন্তু ২০১৬ সালে মোটা মাইনের চাকরি ছেড়ে দেন অনুপম। যার কারণ ছিল ঠাকুরদার স্বপ্ন পূরণ করা। সঙ্গে দেশ সেবার লক্ষ্যও ছিল। আমেরিকার সংস্থাটি অনুপমকে চাকরিতে রাখতে চেয়েছিল। বার্ষিক ৩০ লক্ষ টাকা অফারও করেছিল। কিন্তু অনুপম রাজি হননি। 
এরপর দেশে ফিরে সিভিল সার্ভিসের পড়াশোনা শুরু করেন অনুপম। প্রথমবার মেন পরীক্ষায় গিয়ে আটকে যান। ফের ২০১৭ সালে পরীক্ষা দেন। আর ব্যর্থ হননি। রাজ্যের মধ্যে দ্বিতীয় স্থান পেয়েছেন অনুপম। হয়েছেন ডেপুটি কালেক্টর। ঠাকুরদার স্বপ্ন পূরণ করেছেন নাতি। 

 

‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top