শ্রাবণী গুপ্ত:‌ প্রচারের মূল হাতিয়ার সোশ্যাল মিডিয়া। ইতিমধ্যেই নেট দুনিয়ায় ভাইরাল ‘‌টুম্পা সোনা, তোকে নিয়ে ব্রিগেড যাব’‌। তাবড় বাম নেতারা তাঁদের ফেসবুক পেজে শেয়ার করেছেন সেই ভিডিও। রাজনৈতিক মহলের মতে, ছাত্র এবং যুব সম্প্রদায়কে মাঠে আনতেই এহেন উদ্যোগ। কিন্তু মাঠ ভরাতে এবারও সত্তরোর্ধ্ব দুই প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রীই ভরসা বামেদের। ঠিক কী কী হতে পারে ২৮ ফেব্রুয়ারির ব্রিগেডে? 
আলিমুদ্দিন সূত্রে খবর, প্রধান বক্তার তালিকা মোটের ওপর তৈরি। সিপিআইএম–এর তরফে বক্তব্য রাখতে পারেন সীতারাম ইয়েচুরি, মহম্মদ সেলিম, সূর্যকান্ত মিশ্র, দেবলীনা হেমব্রম। আসার সম্ভাবনা রয়েছে ত্রিপুরার প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকারের। প্রধান শরিক দলগুলোর পক্ষ থেকে এক জন করে বক্তা থাকবেন। সিপিআই–এর স্বপন ব্যানার্জি, আরএসপি–র মনোজ গাঙ্গুলি, ফরওয়ার্ড ব্লকের নরেন চ্যাটার্জি। 
অ–বিজেপি, অ–সাম্প্রদায়িক রাজনৈতিক দলগুলোকে আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। আরজেডি–র তেজস্বী যাদব, সমাজবাদী পার্টির অখিলেশ সিং যাদবকেও বক্তব্য রাখার জন্য আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। কংগ্রেসের তরফে রাহুল বা প্রিয়াঙ্কা গান্ধীকে মঞ্চে চেয়েছে বামেরা। যদিও তাঁদের বদলে মঞ্চে থাকছেন ছত্তিশগড়ের মুখ্যমন্ত্রী ভূপেশ বাঘেল বলে খবর। আইএসএফ–এর তরফে থাকবেন আব্বাস অথবা নৌশাদ সিদ্দিকি। 
aajkaal.in–কে বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তী বললেন, ‘‌বিজেপি আর তৃণমূল এই দুই দলই বাংলা ধ্বংস করছে। বাংলাকে বাঁচাতে হবে। ছাত্রদের শিক্ষা, যুবকদের চাকরি আর সব মানুষের গণতান্ত্রিক অধিকার রক্ষা করতে ব্রিগেডে আসবেন সবাই। বিজেপি খুব খারাপ। তৃণমূল ও সব শেষ করে দিচ্ছে।’‌ 
অর্থাৎ আলিমুদ্দিন থেকে একে গোপালন ভবন পর্যন্ত এক সময় যে তর্ক উঠেছিল, বাংলায় সিপিএম–এর লাইন কী হবে এই ব্রিগেড থেকে তার স্পষ্ট জবাব মিলতে চলেছে। তৃণমূল এবং বিজেপি–র থেকে সম দূরত্ব। পাশাপাশি চেষ্টা চলছে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যকে দিয়ে কোনও বিশেষ বার্তা রেকর্ড করানোর। যা সেদিন শোনানো যেতে পারে। প্রসঙ্গত, গত বছর ব্রিগেডে পৌঁছেও দূষণের কারণে গাড়ি থেকে নামতে পারেননি তিনি। এবার তাঁর শরীর পুরোপুরি সুস্থ না থাকায় সেই ঝুঁকি নিতে চাইছেন না চিকিৎসকরা। 
ওয়াকিবহাল মহলের বক্তব্য, এই ভোটে মূল লড়াই বিজেপি বনাম তৃণমূলের। তবে বাম ছাত্র–যুবদের নবান্ন অভিযান এবং ‘‌খেলা হবে’‌ স্লোগানের পর যুব সম্প্রদায়কে কতটা
 অক্সিজেন জোগাবে এই ব্রিগেড সমাবেশ, সেদিকেই নজর সবার। 

জনপ্রিয়

Back To Top