আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ লকডাউনের মধ্যে নিজেই রাস্তায় নেমে জনতাকে বোঝালেন কীভাবে করোনা থেকে সুরক্ষিত রাখবেন। পেটের চিন্তা করতে হবে না বলে সাহসও জোগান। নিজের জীবনের ঝুঁকি নিয়ে রাস্তায় নেমে মানুষের পাশে দাঁড়ানো মানুষটির নাম মমতা ব্যানার্জি। বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। বৃহস্পতিবার বিকেলে মুখ্যমন্ত্রী যান বড়বাজারের পোস্তা বাজারে। আলু–পেঁয়াজ–আদা–রসুনের জন্য পোস্তা বাজার বিশেষভাবে উল্লেখযোগ্য। সেখান থেকে যাতে শহর ও শহরতলির বিভিন্ন জায়গায় হেঁসেলের অত্যন্ত জরুরি পণ্যগুলি পৌঁছে যায় সেই বিষয়টি নজর দিতে বলেন মুখ্যমন্ত্রী।
দৃশ্য ১)‌ বৃহস্পতিবার বিকেল ৪.৩৫ মিনিটে কলকাতা পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মাকে নিয়ে পোস্তায় হাজির মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে স্থানীয় ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলেন। বোঝান সোশ্যাল ডিসটেন্স কীভাবে রাখতে হবে।
দৃশ্য ২)‌ এরপর আসেন জানবাজারে। বিকেল ৪.৪৫ মিনিটে। সেখানেও ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলেন। তাঁদের অভাব অভিযোগ শোনেন তিনি।
দৃশ্য ৩)‌ তালতলায় পৌঁছন ঠিক ৪.৫৬ মিনিটে। একটি গলিতে ঢুকে যান মুখ্যমন্ত্রী। এক বাসিন্দাকে পাখির খাঁচা পরিষ্কার করার পরামর্শ দেন। চিড়িয়াখানায় পাখিগুলোকে দিয়ে দেওয়ার কথা বলেন। এরপর মুখ্যমন্ত্রী যান রফি আহমেদ কিদওয়াই রোডে। সেখানেও খুচরো বিক্রেতা ও ক্রেতাদের সঙ্গে কথা বলেন। বুঝিয়ে দেন, খাদ্যদ্রব্য পাওয়া নিয়ে চিন্তা করার কোনও কারণ নেই। শুধু সতর্কতা জরুরি।
দৃশ্য ৪)‌ এরপর ছোটেন গড়িয়াহাটে। সেখানেও ব্যবসায়ীদেরকে বোঝান কীভাবে দূরত্ব রেখে বিক্রিবাটা করতে।  সবজির গামলা পরিষ্কার রাখারও পরামর্শ দেন।
 

জনপ্রিয়

Back To Top