আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ ‘‌৪২–এ ৪২–ই যদি চাই তাহলে বরহমপুরটাও চাই, জঙ্গিপুরটাও চাই, মুর্শিদাবাদটাও চাই’। সোমবার মুর্শিদাবাদের বেলডাঙায় তৃণমূলপ্রার্থী অপূর্ব সরকারের সমর্থনে হওয়া নির্বা‌চনী জনসভায় এই স্লোগানই তুললেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা ব্যানার্জি। এদিন মুর্শিদাবাদের বেলডাঙা এবং ভগবানগোলায় দলীয় প্রার্থীদের হয়ে  দুটি প্রচারসভা করেন তৃণমূল সুপ্রিমো। জেলাবাসীদের উদ্দেশ্যে তিনি বললেন, ‘‌কংগ্রেস বিজেপি এবং সিপিএম–এর কাছে বিক্রি হয়ে গিয়েছে।

সেজন্যই কংগ্রেস ছেড়ে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন অপূর্ব সরকার। তাই কংগ্রেস, সিপিএম, বিজেপিকে ভোট দিয়ে ভোট ভাগ করবেন না’।‌
কংগ্রেস সাংসদ অধীররঞ্জন চৌধুরির বিরুদ্ধে তোপ দেগে মমতার কটাক্ষ, ‘‌মুর্শিদাবাদের জন্য কিছুই করেননি বহরমপুরের সাংসদ। আপনি আমাকে প্যান্ডোরার বাক্স খুলতে বলবেন না। নিজের দিকে তাকান। বাম আর রাম আর মধ্যিখানে শ্যাম। দু’‌পাশে দুই বটগাছ, মধ্যিখানে অধীররাজ। উনি সকালে বিজেপি, দুপুরে কংগ্রেস, রাতে সিপিএম।’ তাঁর অভিযোগ, আরএসএস টাকার বান্ডিল নিয়ে ভোটারদের প্রভাবিত করতে রাজ্যে এসেছে।

এমনকি আরএসএস–এর দপ্তরে প্রণব মুখার্জি নিজে গিয়েছিলেন বলেও এদিন উল্লেখ করে মমতার বিস্ফোরক মন্তব্য, ‘‌জঙ্গিপুরে প্রণবপুত্র অভিজিৎ মুখার্জি এবং বহরমপুরে অধীর চৌধুরির হয়ে তারা প্রচার করছে। একহাতে ডান্ডা, আএক হাতে ঝান্ডা নিয়ে পান্ডা হয়েছে আরএসএস।’‌ মুর্শিদাবাদের যুবসম্প্রদায়কে এব্যাপারে সতর্ক থাকতে আবেদন করেছেন তৃণমূলনেত্রী। 
মমতা বলেন, ‘‌তৃণমূলও আজ জাতীয় রাজনৈতিক দল। নির্বাচন মিটলে আমরা সব দল একসঙ্গে বসে ঐক্যবদ্ধ সরকার গড়তে বৈঠক করব। এই চৌকিদার নেতা আমরা চাই না। বিজেপি বলছে ২০২৬–এ দেশের উন্নতি করবে। মনে রাখবেন ২০২৬, ৪২–এ ৪২।’‌  ‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top