আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিতর্কে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ এবং বজরং দল। দশেরায় অস্ত্রপুজো করতে গিয়ে স্কুলের মধ্যে গুলি চালানোর অভিযোগ উঠল এই দুই দলের সদস্যদের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে গত ৮ অক্টোবর মধ্যপ্রদেশের গোয়ালিয়রে। গুলি চালানোর সময় তোলা একটি ভিডিও ভাইরাল হতেই নড়েচড়ে বসেছে প্রশাসন।  ইতিমধ্যে বজরং দল এবং বিশ্ব হিন্দু পরিষদের ১৫০ জনের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। প্রতিবছরই দশেরার দিন ভারতের বিভিন্ন জায়গায় অস্ত্রপুজোর আয়োজন করে বিশ্ব হিন্দু পরিষদ ও বজরং দল। বিষয়টি নিয়ে বারবার বিতর্ক দেখা দিলেও বন্ধ হয়নি অনুষ্ঠান। গত মঙ্গলবার দশেরার দিন দেশের অন্য জায়গার মতো মধ্যপ্রদেশের গোয়ালিয়রেও অস্ত্রপুজোর আয়োজন করেছিল বিশ্ব হিন্দু পরিষদ। একটি স্কুলের ভিতরে বিভিন্ন অস্ত্র সাজিয়ে পুজো করতে জড়ো হয়েছিলেন প্রায় ২০০ জন মানুষ। তারপর মহাসমারোহে বিভিন্ন অস্ত্রের পুজো করা হয়। পুজো শেষ হতেই হাতে বন্দুক তুলে নিয়ে আকাশের দিকে গুলি ছুঁড়তে থাকে বেশ কয়েকজন যুবক। যা ক্যামেরাবন্দি করে সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করে দেয় উপস্থিত কেউ কেউ। আর ভিডিওটি ভাইরাল হতেই বিতর্ক ছড়ায় শহরজুড়ে। নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। ওই অনুষ্ঠানে হাজির থাকা ১৫০ জন মানুষের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে মামলা শুরু করা হয়েছে। তবে এখনও পর্যন্ত কেউ গ্রেপ্তার হয়নি। ভাইরাল হওয়া ভিডিওটিতে দেখা যায়, পাঁচিল দিয়ে ঘেরা একটি মাঠের মাঝখানে বেশ কয়েকজন যুবক দাঁড়িয়ে আছে। আর তাদের ঘিরে রয়েছে আরও কয়েকজন। এরপর দেখা যায় কয়েকটি যুবক হাতে বন্দুক তুলে নিয়ে আকাশের দিকে গুলি ছুঁড়ছে। আর তাদের পাশে দাঁড়িয়ে থাকা মানুষরা মোবাইলে তার ভিডিও তুলছে। 

জনপ্রিয়

Back To Top