Russia: যুদ্ধ কি অবশ্যম্ভাবী!‌ ‘‌ইউক্রেন ছাড়ো’‌, নাগরিকদের নির্দেশ ভারতের

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ জটিলতা আর কাটছে না।

পশ্চিমের দেশগুলো ক্রমেই দাবি করে যাচ্ছে, ইউক্রেনে হামলা করবেই রাশিয়া। এর মধ্যে ইউক্রেন সীমান্তে মোতায়েন বিশাল বাহিনীর একটা অংশ সরিয়ে নিয়েছিল মস্কো। তাতেও চাপানউতোর কমছে না। আজ রবিবার রুশ প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের সঙ্গে কথা বলছেন ফরাসি প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাক্রোঁ। তাঁর দপ্তর জানিয়েছে, পূর্ব ইউরোপে যুদ্ধ থামাতে এটাই শেষ চেষ্টা মাক্রোঁর তরফে। 
এর মধ্যেই নিজের নাগরিকদের ইউক্রেন ছাড়তে বলল ভারত। জারি করল নির্দেশিকা। এমনকী সেখানে পাঠরত ভারতীয়দেরও সেদেশ ছাড়তে বলা হয়েছে। যদি না কারও থাকা ‘‌আবশ্যক’‌ হয়। নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, বাণিজ্যিক বা চার্টার্ড যেমন বিমানই পাওয়া যাচ্ছে, তাতে যেন উঠে পড়েন ভারতীয় নাগরিকরা। কারণ যে কোনও মুহূর্তে আক্রমণ করতে পারে রাশিয়া। গত কয়েক দিনে এই নিয়ে দ্বিতীয় নির্দেশিকা জারি করল ইউক্রেনের ভারতীয় দূতাবাস। প্রথম নির্দেশিকায় পড়ুয়াদের ইউক্রেন ছাড়ার কথা বলেছিল ভারত। 


টাটা সংস্থার এয়ার ইন্ডিয়া আগামী ২২, ২৪ ও ২৬ ফেব্রুয়ারি তিনটি বিশেষ বিমান চালাবে। ইউক্রেনের বৃহত্তম বিমানবন্দর বরিস্পিল থেকে ভারতীয়দের নিয়ে বিমান তিনটি ভারতে ফিরবে। বর্তমান পরিস্থিতিতে বিদেশ মন্ত্রক ২৪ ঘণ্টার কন্ট্রোল রুম খুলেছে। সেখানে এই সংক্রান্ত যে কোনও প্রয়োজনে যোগাযোগ করা যাবে। 
এদিকে ইউক্রেনের পূর্বপ্রান্তের শহর ডোনেৎস্কে একটি অসামরিক কনভয়ের ওপর হামলা চালিয়েছে রাশিয়ার মদতপুষ্ট বিদ্রোহীরা। এজন্য সরাসরি রাশিয়াকে দায়ী করেছে আমেরিকা সহ পশ্চিমী দেশগুলোর সংবাদমাধ্যমগুলো। যুদ্ধ আসন্ন মনে করে সীমান্তবর্তী ওই এলাকা থেকে অসামরিক নাগরিকদের সরাতে গেছিল কনভয়। তখনই আক্রান্ত হয় বলে অভিযোগ। এই সব রিপোর্টের ওপর ভিত্তি করেই মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেন মনে করছেন, যে কোনও সময় হামলা চালাতে পারে রাশিয়া।

আকর্ষণীয় খবর