KCR: BJP–বিরোধী জোটের পালে হাওয়া, উদ্ধবের বাসভবনে মধ্যাহ্নভোজে কেসিআর

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ দেশে বিজেপি, থুড়ি মোদি বিরোধী হাওয়া ক্রমেই জোরালো হচ্ছে।

একের পর এক রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সরাসরি বিরোধিতায় নামছেন কেন্দ্রের। ২০২৪ লোকসভা নির্বাচনকে পাখির চোখ করে বিরোধী সলতে পাকানোর চেষ্টা করছেন। এবার এই তালিকায় নাম জুড়ল তেলঙ্গনার মুখ্যমন্ত্রী কে চন্দ্রশেখর রাওয়ের। 
নামটা আগেই জুড়েছিল। সম্প্রতি তিনি বেশ সক্রিয় হয়ে উঠেছেন। দিন কয়েক আগে প্রধানমন্ত্রী তেলঙ্গনা সফরের আগে তাঁকে একহাত নিয়েছিলেন। বলেছিলেন, যেই রাজ্যে যখন ভোট, সেই রাজ্যে প্রচারে গিয়ে সে রকমই সাজেন প্রধানমন্ত্রী। এবার রাও গেলেন মুম্বইতে। মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের বাসভবনে মধ্যাহ্নভোজ সারলেন। জানালেন, শিবসেনা সুপ্রিমোর ডাকেই তাঁর মুম্বই আসা। এও জানালেন, এনসিপি সুপ্রিমো শারদ পাওয়ারের সঙ্গেও দেখা করবেন। 
মমতা ব্যানার্জির মতো কেসিআরও এই বিরোধী জোটে কংগ্রেসকে চাইছেন না। সেকথা স্পষ্টা জানিয়ে দিয়েছেন। তাই আঞ্চলিক দলগুলোর নেতাদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। এর আগে মমতার সঙ্গেও কথা হয়েছে তাঁর। জানিয়েছেন, শিগগিরই মমতা যাবেন হায়দরাবাদে। রাজ্যের অধিকার কেন্দ্রের খর্ব করা নিয়ে আলোচনা করবেন দু’‌জন।

 

student leader: আনিস কাণ্ডে ধুন্ধুমার আমতায়, হাওড়া গ্রামীণের ডিজিকে তলব ভবানী ভবনে, রিপোর্ট চাইলেন ডিজি


এবার সেই উদ্দেশ্যেই এলেন মুম্বই। মেয়ে কে কবিতা এবং তেলঙ্গনা রাষ্ট্রসমিতির কয়েক জন নেতাও রয়েছেন তাঁর সঙ্গে। উদ্ধবের সঙ্গে সাক্ষাতের পর সাংবাদিকদের তিনি জানালেন, ‘‌রাজনীতি এবং স্বাধীনতার ৭৫ বছর পর দেশের উন্নয়ন নিয়ে কথা বলতে আমি মহারাষ্ট্রে এসেছি। উদ্ধবজির সঙ্গে কথা বলে দারুণ লাগছে। আমরা ভাইয়ের মতো। অনেক ইস্যু নিয়ে কথা হল। দেশে এ রকম অনেক নেতাই রয়েছেন, যাঁরা আমাদের মতো ভাবেন। তাঁদের সঙ্গে কথা বলছি। দিন কয়েকের মধ্যেই আমরা হায়দরাবাদ বা অন্য কোথাও বলব। আলোচনা করব।’‌
উদ্ধব ঠাকরের পাশে এদিন ছিলেন ছোট ছেলে তেজস ঠাকরে, সেনা সাংসদ সঞ্জয় রাউত। বৈঠকের পর উদ্ধব বলেন, ‘‌দেশে পরিস্থিতি যেদিকে যাচ্ছে, যে ধরনের নিচু মানের রাজনীতি হচ্ছে, তা আর যাই হোক হিন্দুত্ব নয়। এ রকম চলতে থাকলে দেশের ভবিষ্যৎ কী?‌ যে কেউ মুখ্যমন্ত্রী বা প্রধানমন্ত্রী হোন, আমরা শুধুই দেশের ভবিষ্যৎ নিয়ে কথা বলছি।’‌
ছবি:‌ টুইটার থেকে


 

আকর্ষণীয় খবর