আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ শীর্ষ আদালতের আদেশ মেনে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ছয়টার সময় কড়া পুলিসি নিরাপত্তায় স্পিকারের সঙ্গে দেখা করে পদত্যাগপত্র জমা দেন ১০ বিক্ষুব্ধ বিধায়ক। পদত্যাগপত্র জমা দেওয়ার জন্য বিধায়ক বায়ার্থী বাসবরাজকে রীতিমতো ছুটে স্পিকারের দপ্তরে ঢুকতে দেখা যায়। এদিন রাতের মধ্যেই বিক্ষুব্ধ বিধায়কদের পদত্যাগপত্র গ্রহণ নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে কর্নাটকের স্পিকার কেআর রমেশ কুমারকে আদেশ দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। রমেশ কুমার সুপ্রিম কোর্টকে আবেদন করেছিলেন ওই বিধায়করা স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করেছেন নাকি তাঁদের বাধ্য করা হয়েছে তা খতিয়ে দেখার জন্য আরও সময় দরকার। কিন্তু তা নাকচ করে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট।
তাঁদের ইস্তফাপত্র স্পিকার গ্রহণ না করায় সেই সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ জানইয়ে সুপ্রিম কোর্টে মামলা করেছিলেন ১০ বিক্ষুব্ধ বিধায়ক। তাঁদের অভিযোগ ছিল জোট সরকারকে সুবিধা পাইয়ে দিতেই তাঁদের পদত্যাগপত্র গ্রহণ করছেন না স্পিকার। কংগ্রেস এবং জেডিএস স্পিকারকে আবেদন করেছেন বিক্ষুব্ধ বিধায়কদের ডিসকোয়ালিফাই বা বহিষ্কার করার জন্য। কর্নাটক বিধানসভায় কংগ্রেসের চিফ হুইপ গণেশ হুক্কেরি হুইপ জারি করে শুক্রবার থেকে শুরু হতে চলা বিধানসভার অধিবেশনে দলের সব বিধায়ককে উপস্থিত থাকতে নির্দেশ দিয়েছেন। ওই দিনই বিধানসভায় আর্থিক বিল পাস হওয়ার কথা। অনুপস্থিত বিধায়কদের অ্যান্টি–ডিফেকশন আইনের আওতায় বহিষ্কার করা হবে বলে জানিয়ে দিয়েছেন হুক্কেরি।    
ছবি:‌ এএনআই‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top