Kangana Ranaut: শিখদের অবমাননা!‌ কঙ্গনাকে সমন দিল্লি বিধানসভা প্যানেলের

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে কৃষকদের আন্দোলনকে কোনও দিনই সুনজরে দেখেননি কঙ্গনা। সেই নিয়ে বরাবরই ভুলভাল মন্তব্য করেছেন। কুরুচিকর পোস্ট দিয়েছেন। এবার মোদি সরকার কৃষি আইন প্রত্যাহারের ঘোষণা করতেই নায়িকার নিশানায় শিখরা। তাঁদের ‘‌খালিস্তানি সন্ত্রাসবাদী’‌ বলতেও দ্বিধা করলেন না। এই মন্তব্যের জন্য কঙ্গনাকে সমন পাঠাল দিল্লি বিধানসভার প্যানেল।
৬ ডিসেম্বর এই প্যানেলের মুখোমুখি বসতে হবে কঙ্গনাকে। প্যানেলের মাথায় রয়েছেন আপ নেতা রাঘব চাঢা। কঙ্গনাকে এই মর্মে নোটিস পাঠিয়েছে কমিটি। তাতে সই রয়েছে ডেপুটি সেক্রেটারির। নোটিসে বলা হয়েছে, ২০ নভেম্বর কঙ্গনা ইনস্টাগ্রামে যে পোস্ট দিয়েছেন, তার জন্য প্রচুর অভিযোগ জমা পড়েছে। শিখদের ‘‌খালিস্তানি সন্ত্রাসবাদী’‌ বলে গোটা সম্প্রদায়কে অপমান করেছেন কঙ্গনা। এতে সম্প্রীতি নষ্ট হতে পারে। 
এর আগে কঙ্গনার বিরুদ্ধে মুম্বইয়ের খার থানায় এফআইআর দায়ের হয়েছে। এফআইআর করেন মুম্বইয়ের ব্যবসায়ী অমরজিৎ সিং সাঁধু, দিল্লি শিখ গুরুদ্বার ম্যানেজমেন্ট কমিটি, শিরোমণি অকালি দল। কঙ্গনার বিরুদ্ধে ২৯৫এ (‌ইচ্ছাকৃত অপমান করে কারও ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত)‌‌ ধারায় মামলা আনা হয়েছে। 
কঙ্গনা নিজের পোস্টে লিখেছিলেন, ‘‌আজ হয়তো খালিস্তানি সন্ত্রাসবাদীরা সরকারকে চাপে ফেলেছে, কিন্তু এক জন মহিলার কথা ভুলবেন না। দেশের একমাত্র মহিলা প্রধানমন্ত্রী এদের নিজের জুতোর নীচে পিষে দিয়েছিলেন। দেশের যতই তিনি ক্ষতি করুন, এদের নিজের জুতোর নীচে মশার মতো পিষেছিলেন, নিজের জীবনের বিনিময়ে। তবু দেশকে ভাঙতে দেননি।’‌

Delhi Assembly's Committee on Peace and Harmony, headed by AAP leader Raghav Chadha, summons actor Kangana Ranaut on December 6, over her alleged remarks on Sikhs pic.twitter.com/QBYJl7eBCd

— ANI (@ANI) November 25, 2021

আকর্ষনীয় খবর