আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ পরপর জোরাল ভূমিকম্পে একসঙ্গে কেঁপে উঠল পাপুয়া নিউ গিনি, রাশিয়া এবং ইন্দোনেশিয়া। ইন্দোনেশিয়ার বালিতে মৃত্যু হয়ছে তিনজনের। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকালে প্রথম কম্পন হয় পাপুয়া নিউ গিনি দ্বীপে। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৭। তারপর আরও তিনটি আফটারশক হয়। রিখটার স্কেলে সেগুলির তীব্রতা ছিল ৫.‌৭, ৫.‌৯ এবং ৬.‌২। তবে পাপুয়া নিউ গিনিতে এখনও পর্যন্ত কোনও হতাহতের খবর নেই।
এরপর কম্পন অনুভূত হয় ইন্দোনেশিয়ার জাভা এবং বালি দ্বীপে। রিখটার স্কেলে তীব্রতা ছিল ৬.‌৩। বালিতে বাড়ির দেওয়ালের একাংশ চাপা পড়ে তিনজনের মৃত্যু হয়েছে। একথা জানিয়েছেন ইন্দোনেশিয়ার বিপর্যয় মোকাবিলা সংগঠনের প্রধান সুতোপো পুরউও নুগ্রোহো। তবে কোনও সুনামি সতর্কতা জারি হয়নি। ভূমিকম্পের উৎসস্থল ছিল সিতুবোন্ডো রিজেন্সির উত্তরপূর্বে সমুদ্রের ৫৫ কিলোমিটার গভীরে। 
পরের ভূমিকম্প হয় রাশিয়ার কুরিল দ্বীপপুঞ্জে। রিখটার স্কেলে কম্পনের মাত্রা ছিল ৬.‌৭। রাশিয়ার ভূতত্ত্ব কেন্দ্রের প্রধান এলেনা সেমিওনোভা জানালেন, স্থানীয় সময় সকাল ১০.‌১৬ মিনিটে কম্পন অনুভূত হয়েছিল। ভূমিকম্পের উৎসস্থল ছিল কুরিলের পূর্বে জনমানবহীন দ্বীপ ওনেকোটানে। প্রথম কম্পনের পর ফের ৫.‌২ মাত্রার আফটার শক অনুভূত হয় সকাল ১১.‌১৪ মিনিট নাগাদ। তবে রাশিয়াতেও কোনও ক্ষযক্ষতি বা প্রাণহানির খবর নেই।    

জনপ্রিয়

Back To Top