Durga Puja: ‌বাড়িতেই কাটান পুজো, কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের নয়া নির্দেশিকায় মন খারাপ কলকাতার  

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ কোভিড আবহে গতবার মণ্ডপে প্রবেশাধিকার ছিল না দর্শকদের। চলতি বছর করোনা পরিস্থিতি এখনও অবধি নিয়ন্ত্রণে থাকলেও কলকাতার পুজো মণ্ডপে ভিড় করে ঠাকুর দেখার অনুমতি মিলবে কি?‌ কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের নতুন নির্দেশিকায় কিন্তু অন্য কথাই বলছে।
দু’দিন আগে প্রতিটি রাজ্যের মুখ্যসচিবকে কেন্দ্রের লেখা চিঠিতে বলা হয়েছে, যে সব জেলায় করোনা সংক্রমণের হার ৫ শতাংশের বেশি, সেখানে কোনও ধরনের জনসমাগমের অনুমতি যেন না দেওয়া হয় সংশ্লিষ্ট রাজ্য সরকারের তরফ থেকে। পশ্চিমবঙ্গে এই মুহূর্তে কেবল কলকাতাতেই সংক্রমণের হার ৫ থেকে ১০ শতাংশের মধ্যে। ফলে কেন্দ্রের নির্দেশিকা মেনে এগোতে হলে কলকাতার পুজো মণ্ডপগুলিতে ভিড় এড়ানোই বাঞ্ছনীয়। তবে পুজোর ভিড়ের কথা মাথায় রেখে স্বাস্থ্যকর্তাদের আবেদন, আগামী তিন মাসে করোনা সংক্রমণ যাতে নতুন করে বৃদ্ধি না পায়, তার জন্য এই বছর বাড়ি থেকে আনন্দ করুন। 
তবে দেশে রোজ করোনায় আক্রান্ত হয়ে চলেছেন প্রায় ৩০ হাজারের বেশি মানুষ। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যসচিব রাজেশ ভূষণ স্বীকার করেছেন, যে গতিতে সংক্রমণের হার কমার কথা ছিল, সেই গতিতে কমছে না। কেরল ও মহারাষ্ট্রের করোনা পরিস্থিতি চিন্তায় রাখছে। কলকাতা–সহ দেশের অন্তত ২৩ জেলায় সংক্রমণের হার উদ্বেগজনক। 
এই আবহে আগামী তিন মাস দেশ জুড়ে উৎসবের মরসুম হওয়ায় সংক্রমণ এক ধাক্কায় বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করছে স্বাস্থ্য মন্ত্রক। উৎসবের জনসমাগম এ দেশে অতিমারির তৃতীয় ঢেউকে ডেকে আনতে পারে বলে মনে করছেন কেন্দ্রীয় কর্তারা। তাই তা রুখতে উৎসবের দিনগুলির জন্য বিশেষ নির্দেশিকা প্রকাশ করে তা রাজ্যগুলিকে যথাসম্ভব পালনের নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্র।
নতুন নির্দেশিকায় বলা হয়েছে, যে সব জেলায় সংক্রমণের হার ৫ শতাংশের নীচে, সেখানে স্থানীয় প্রশাসনের অনুমতি নিয়ে জনসমাগম হতে পারে। কিন্তু নির্দিষ্ট সংখ্যার বেশি মানুষের ভিড় করা যাবে না। কেউ নিয়ম ভাঙলে প্রয়োজনীয় আইনি ব্যবস্থা নিতেও বলা হয়েছে। কিন্তু যে এলাকাগুলি কন্টেনমেন্ট জোন হিসাবে চিহ্নিত রয়েছে, অথবা যে জেলাগুলিতে সংক্রমণের হার ৫ শতাংশের বেশি, সেখানে যাতে কোনও জনসমাগমই না হয়, স্থানীয় প্রশাসনকে তা দেখতে বলা হয়েছে। এমনকি উৎসবের দিনগুলিতে বিভিন্ন জেলায় কোভিড রোগীর সংখ্যা বাড়ছে কি না, নির্দেশিকায় রাজ্যগুলিকে সেদিকে কড়া নজর রাখতে বলা হয়েছে। 
 

আকর্ষনীয় খবর