আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ গত কয়েকদিন ধরেই নুসরত-‌নিখিল বিয়ে নিয়ে রাজনৈতিক চাপানউতোর তুঙ্গে। নুসরত জানিয়েছেন, নিখিলের সঙ্গে তাঁর বিয়েই হয়নি। তদাই বিচ্ছেদের প্রশ্নই নেই। সহবাস করছিলেন তাঁরা। আর এই বিষয়ে বঙ্গ বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‌হিন্দুদের বোকা বানিয়েছেন নুসরত জাহান। সিঁদুর পরে বিয়ের নাটক করে তিনি হিন্দুদের ভোট পেয়েছেন। এখন ভোটে জেতাও হয়ে গিয়েছে। তাই তিনি বলছেন বিয়ে হয়নি। বসিরহাটের মানুষজন তাকে সাংসদ বানিয়েছিলেন। এখন বুঝুন কাকে ভোট দিয়েছেন। তিনি বলছেন বিয়েই হয়নি। আবার ভোটের সময় বলতেন বিয়ে হয়েছে। এখন আবার সন্তানসম্ভবা তিনি। সেই বিষয় নিয়েও প্রশ্ন রয়েছে। আমার মনে হয় ভোটে জেতার জন্যই বিয়ে করেছিলেন তিনি।’‌ প্রসঙ্গত, নুসরতের বিবাহ নিয়ে প্রশ্ন তোলেন বিজেপির আইটি সেলের প্রধান অমিত মালব্যও। তিনি বলেন, ‘‌নুসরত জাহান একজন সাংসদ। তিনি বিবাহিত না অবিবাহিত সেটা তাঁর ব্যক্তিগত বিষয়। কিন্তু তিনি নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি হিসাবে যখন লোকসভায় শপথ নিচ্ছিলেন সংসদে অন-রেকর্ড বলেছেন, নিখিল জৈনের সঙ্গে তাঁর বিয়ে হয়েছে। তাহলে কি মিথ্যা কথা বলেছেন নুসরত?এই বিষয়টি নিয়েই প্রশ্ন থাকছে। তাহলে কি জনগণকে ঠাকাচ্ছেন নুসরত!‌’‌ যদিও এ প্রসঙ্গে তৃণমূলের তরফে দলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষ বলেন, ‘‌এটার সঙ্গে দলের কোনও সম্পর্ক নেই। এটা ব্যক্তিগত বিষয়। রাজনীতির সঙ্গে ব্যক্তিগত বিষয় না আনাই ভালো। আর বিজেপিকে বলব এসব নিয়ে তর্ক করতে যাবেন না। বিরত থাকুন। তর্ক শুরু হলে বিজেপির পক্ষে ভালো হবে না। মানুষের জন্য কাজ করতেই ব্যস্ত রয়েছে তৃণমূল।’‌ 

জনপ্রিয়

Back To Top