একুশে জুলাইয়ের রাতে বিরাটিতে শুটআউট, খুন তৃণমূল কর্মী

আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বিরাটিতে শুটআউট। একুশে জুলাইয়ের রাতে খুন হলেন এক তৃণমূল কর্মী। খুনের নেপথ্যে বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই রয়েছে বলে অভিযোগ শাসক দলের। অবশ্য অভিযোগ অস্বীকার করেছে বিজেপি।
জানা গেছে বুধবার সন্ধেয় বিরাটির বণিক মোড়ে দলীয় কার্যালয়েই ছিলেন শুভ্রজিৎ দত্ত (‌৩৯)‌। রাত সাড়ে দশটা নাগাদ বাড়ি ফিরছিলেন তিনি। অভিযোগ, সেই সময় বাইকে চড়ে অজ্ঞাতপরিচয় বেশ কয়েকজন যুবক তাঁর পিছু নেয়। এরপর আচমকাই এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে থাকে। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, কমপক্ষে পাঁচ রাউন্ড গুলি চলেছে এলাকায়। চারটি গুলি লাগে শুভ্রজিতের বুকে। একটি গুলি লাগে মাথায়। ঘটনাস্থলেই লুটিয়ে পড়েন শুভ্রজিৎ। গুলির শব্দ পেয়ে বাড়ি থেকে বেরিয়ে পড়েন স্থানীয়রা। ঘটনাস্থলে চাঞ্চল্য ছড়ায়। পরিস্থিতি বেগতিক দেখে এলাকা ছাড়ে অভিযুক্ত যুবকেরা। এরপর নিমতা থানা থেকে বিশাল পুলিশবাহিনী ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। শুভ্রজিৎকে উদ্ধার করে স্থানীয় হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন। এই ঘটনার নেপথ্যে বিজেপির যোগসাজশ রয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। কারণ, একুশে জুলাইয়ের দুপুরে বিরাটির ত্রাস বাবুলাল সিংয়ের সঙ্গে বেশ কয়েকজন তৃণমূল কর্মী বিবাদে জড়িয়ে পড়ে। হাতাহাতিও হয়। বাবুলালের মাথা ফাটিয়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে। বর্তমানে বাবুলাল বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। সেই বদলা নিতে শুভ্রজিতের মতো সক্রিয় তৃণমূল কর্মীকে খুন করা হল কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। অভিযুক্তদের খোঁজে তল্লাশি চলছে।