আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ সার সার ট্রাক্টর। এক–একটিতে গাদাগাদি করে বসে রয়েছেন অন্তত ১০ জন। অনেকেই আর ট্রাক্টরে চাপতে পারেননি। তাই পায়ে হেঁটেই চলেছেন। তাঁরা পাঞ্জাবের কৃষক। লক্ষ্য ‘‌দিল্লি চলো’‌। সেখানেই নতুন কৃষি আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদে বসবেন তাঁরা। 
পাঞ্জাব থেকে দিল্লি যাওয়ার জন্য হরিয়ানা পেরোতে হয়। সেখানেই কৃষকদের আটকাল রাজ্যের বিজেপি শাসিত সরকার। পাঞ্জাব–হরিয়ানা সীমান্ত আগেই বন্ধ করে রেখেছে পুলিশ। কিন্তু কৃষকরা নাছোড়। দিল্লি তাঁরা যাবেনই। বিক্ষোভকারীদের রুখতে জলকামান, কাঁদানে গ্যাস ছোড়ে পুলিশ। হার মানেননি কৃষকরা। 
হরিয়ানা পৌঁছনোর জন্য একটা সেতু পেরনোর সময় বাধার সম্মুখীন হন। সেখানে রাখা ছিল ব্যারিকেড। সেই ব্যারিকেড তুলে নদীতে ফেলে দেন তাঁরা। পুলিশের সঙ্গে হাতাহাতি শুরু হয়। তবু তাঁরা পিছু হঠতে চাননি। তাঁদের মুখে তখন কেন্দ্র সরকার বিরোধী স্লোগান। ব্যারিকেড ফেলে জয়ের আনন্দে হাত মুঠো করে ছুড়ছেন শূন্যে। 
এখন কৃষকদের মিছিল রয়েছে হরিয়ানা–দিল্লি সীমান্তে বদরপুরে। বৃহস্পতিবার বিকেলেই মিছিল দিল্লিতে পৌঁছনোর কথা। এদিন নিয়ন্ত্রণ করা হয়েছে দিল্লি মেট্রোর চলাচল। দিল্লি পুলিশ বুধবারই জানিয়েছে, প্রতিবাদ কর্মসূচির অনুমোদন দেয়নি তারা। উল্লেখ্য, দিল্লি পুলিশের নিয়ন্ত্রণ কেন্দ্রের হাতে। 
 

জনপ্রিয়

Back To Top