আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ এক কথায় যাকে বলে ঐতিহাসিক সিদ্ধান্ত। অবশেষে আইয়াপ্পা স্বামীর মন্দিরে মহিলাদের প্রবেশাধিকারে সম্মতি জানাল শবরিমালা মন্দির পরিচালন বোর্ড।  সব বয়সের মহিলারাই এবার থেকে আইয়াপ্পাস্বামীর মন্দিরে প্রবেশ করতে পারবেন এই সিদ্ধান্তে সম্মতি জানিয়েছেন তাঁরা। অথচ কয়েকদিন আগেই ঋতুমতি মহিলারা মন্দিরে প্রবেশ করায় শুদ্ধিকরণ প্রক্রিয়া হয়েছে। তাই নিয়ে তোলপাড় হয়েছে গোটা দেশ। হঠাৎ করে এই মতি পরিবর্তনের কারণ অনেকের কাছেই রহস্য। 
কেরলের বাম সরকার অবশ্য প্রথম থেকেই শীর্ষ আদালতের রায়ে মান্যতা দিয়েছিল।

কিন্তু মন্দির পরিচালন বোর্ড কিছুতেই শীর্ষ আদালতের রায় মানতে রাজি হচ্ছিল না। এই নিয়ে প্রবল অশান্তি চলেছে গত কয়েক মাস ধরে। বুধবার শীর্ষ আদালতে প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈয়ের নেতৃত্বে পাঁচ বিচারপতিকে নিয়ে গঠিত বেঞ্চে মন্দির পরিচালন বোর্ডের পক্ষ থেকে জানানো হয়, তাঁরা শীর্ষ আদালতের রায়ের সঙ্গে একমত। কোনও ভাবেই শুধু মাত্র জৈবিক কারণে একশ্রেণি মানুষকে ভগবানকে পুজোর অধিকার কেড়ে নেওয়া যায় না। সেটা উচিতও নয়। 
যদিও আইয়াপ্পা স্বামীর মন্দিরে ঋতুমতি মহিলাদের প্রবেশাধিকারের রায় পুণর্বিবেচনা করার জন্য শীর্ষ আদালতের কাছে প্রায় ৪০টির মত আবেদন জমা পড়েছিল। সেই সব আবেদনই শুনেছেন বিচারপতিরা। তবে আগের নির্দেশই বহাল রেখেছেন তাঁরা। 

জনপ্রিয়

Back To Top