অম্লানজ্যোতি ঘোষ, আলিপুরদুয়ার:‌ স্ত্রীকে ফেসবুকে এক যুবক অশালীন মন্তব্য করেছিলেন বলে অভিযোগ। অভিযুক্ত ওই যুবককে থানায় ডেকে এনে মারধরের অভিযোগ উঠল জেলাশাসকের বিরুদ্ধে। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। অভিযুক্ত জেলাশাসককে ছুটিতে পাঠানো হচ্ছে বলে জানা গেছে। রবিবার আলিপুরদুয়ার জেলার ফালাকাটা থানার ঘটনা। সেখানকার জেলাশাসক নিখিল নির্মলের বিরুদ্ধে স্থানীয় যুবক বিনোদকুমার সরকারকে মারধরের অভিযোগ উঠেছে। বিনোদ জেলাশাসকের স্ত্রী নন্দিনী কৃষ্ণনকে ফেসবুকে অশ্লীল কথা লিখেছিলেন বলে অভিযোগ।

এই ঘটনার ব্যাপারে জেলাশাসকের বক্তব্য পাওয়া যায়নি। জানা গেছে, ওই যুবককে এদিন ফালাকাটা থানায় ডেকে পাঠানো হয়েছিল। কেন তিনি এমন কাজ করলেন, তা জানতে চাওয়া হয়। কারও প্ররোচনাতে তিনি এই কাজ করেছেন কি না, তাও জানতে চান নিখিল নির্মল। থানায় সে সময় পুলিসকর্মীরা ছিলেন। জেলাশাসক কথা বলার সময়ই বিনোদকে মারেন। পরপর কয়েকবার গালে, ঘাড়ে চড় মারেন বলে অভিযোগ। এরপর তাঁর স্ত্রীও মারধর করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মার খাওয়ার সময় ওই যুবক ঘটনার জন্য ক্ষমা চান। বলেন, ‘‌ভুল হয়ে গেছে। ক্ষমা করে দিন, স্যর।’‌ পরে তাঁকে সেখান থেকে নিয়ে যাওয়া হয়। ‌

জনপ্রিয়

Back To Top