আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ বুধবারের পর বৃহস্পতিবার সন্ধ্যাতেও রাজ্যের কয়েকটি জায়গায় বৃষ্টি হতে পারে। এমনটাই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। নদিয়া, মুর্শিদাবাদ, বীরভূম, উত্তর ২৪ পরগণা এবং দক্ষিণ ২৪ পরগণায় ঝোড়ো হাওয়া এবং অল্পবিস্তর বৃষ্টির পূর্বাভাস রয়েছে। মেঘ কিছুটা সরে এলে বৃষ্টির দেখা পেতে পারেন শহরবাসীও। এদিকে, মৌসম ভবন জানিয়ে দিল, আগামী ৬ জুন নাগাদ কেরলে ঢুকতে পারে মৌসুমী বায়ু। অর্থাৎ জুন মাসের মাঝামাঝি সময়ে দক্ষিণবঙ্গে প্রবেশ করবে বর্ষা। তবে দক্ষিণবঙ্গে দেরিতে এলেও উত্তরবঙ্গে সঠিক সময়ে দেখা মিলবে বৃষ্টির। তাপমাত্রাও কমতে শুরু করবে। 
এর আগে মার্চ–এপ্রিলের প্রথমদিকে কিছুটা ঝড়–বৃষ্টি হলেও সাইক্লোন ফণীর পর পুরোপুরি তা উধাও হয়ে যায়। অসহনীয় হয়ে ওঠে পরিস্থিতি। কলকাতা–সহ দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায় রীতিমতো লু বইতে থাকে। গরমের জ্বালায় অতিষ্ট হয়ে শহরবাসী। তবে গত কয়েকদিন বিকেলে ঝোড়ো হাওয়া এবং অল্প বৃষ্টি কিছুটা হলেও সেই গরমকে লাঘব করেছে। দিনের তাপমাত্রা বেশি থাকলেও কমেছে রাতের তাপমাত্রা। বৃহস্পতিবারের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬.১ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ২৬.৬ ডিগ্রি সেলসিয়াস, যা স্বাভাবিক। আর্দ্রতার পরিমাণ সর্বোচ্চ ৮৮ শতাংশ , সর্বনিম্ন ৪৪ শতাংশ। এর আগে বুধবারের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৫.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি বেশি। তবে আপাতত বৃষ্টির পরিমাণ ধীরে ধীরে কমবে। এমনটাই জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর।

জনপ্রিয়

Back To Top