Death: 'তিতাস আর নেই!', বিয়ের দু’সপ্তাহ পরই রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার, ভেঙে পড়েছেন আত্মীয় থেকে বন্ধুরা

আজকাল ওয়েবডেস্ক: গুণী এবং প্রাণবন্ত মেয়েটি আর নেই! তিতাস নন্দীর রহস্যমৃত্যুতে শোকের ছায়া পরিবার থেকে বন্ধুবান্ধবদের মধ্যে।

দুই সপ্তাহ আগেই মনের মানুষের সঙ্গেই জীবনের নতুন অধ্যায়ে পা রেখেছিলেন তিতাস। আইবুড়োভাত এবং বিয়ের রেজিস্ট্রির সমস্ত ছবি সোশ্যাল মিডিয়াতেও ভাগ করে নিয়েছিলেন তিনি। নতুন অধ্যায়ের জন্য শুভেচ্ছায় ভাসছিলেন তিনি। কিন্তু কে জানত, বিয়ের দুই সপ্তাহের মধ্যেই এমন চরম পরিণতি ঘটবে! 

শুক্রবার গভীর রাতে বাগুইআটির আমবাগান এলাকার একটি বহুতলের নিচ থেকে তিতাসের রক্তাক্ত দেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ফ্ল্যাটে তিতাসের এক আত্মীয় থাকতেন। তিনিই প্রথমে দেখতে পান। নাগেরবাজার থানার পুলিশকে খবর দেওয়া হলে, তারাই এসে দেহ উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যায়। চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ময়নাতদন্তের রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করছে পুলিশ। ইতিমধ্যেই তিতাসের স্বামী কৌস্তব সরকারকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

তিতাসের মৃত্যুর জন্য কৌস্তব এবং তাঁর পরিবারের দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছেন আত্মীয়রা। তাঁদের অভিযোগ, তিতাসের মৃত্যুর জন্য তাঁরাই দায়ী! ঘটনায় অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করা হয়েছে। তিতাসের নিকটাত্মীয়দের দাবি, তাঁকে ফ্ল্যাটের ছাদ থেকে ফেলে মেরে ফেলেছেন কৌস্তব। বিয়ের পর থেকেই তাঁদের মধ্যে তুমুল ঝামেলা হত। ঝগড়ার আওয়াজ ফ্ল্যাটের অন্যান্য বাসিন্দারাও পেতেন। অশান্তির কথা বাড়িতেও জানিয়েছিলেন তিতাস। কিন্তু শেষপর্যন্ত যে তাঁকে প্রাণ হারাতে হবে, তা আন্দাজ করতে পারেননি আত্মীয়রা। 

আকর্ষণীয় খবর