সুখেন্দু আচার্য, চাকদা, ১৫ এপ্রিল- বাংলা নববর্ষে অভিনব প্রচার চাকদার যুব তৃণমূলের। যদিও তাদের এই প্রচার কোনও একটি বিশেষ আসনের জন্য নয়। যুব তৃণমূলের কর্মীরা সাধারণ মানুষের কাছে আবেদন করেছেন ৪২টি আসনেই তৃণমূল প্রার্থীদের জেতানোর জন্য। তঁারা এদিন জানান, সাম্প্রদায়িক বিজেপি এই দেশকে ধর্মের ভিত্তিতে ভাগ করে দিতে চাইছে। তাদের এই প্রচেষ্টাকে ব্যর্থ করে দিতে মমতা ব্যানার্জির হাত শক্ত করতে হবে। তাই মমতা ব্যানার্জির নেতৃত্বাধীন তৃণমূলকে রাজ্যের সব আসনেই জয়ী করতে হবে। এই অভিনব প্রচারে নেতৃত্ব দেন চাকদা যুব তৃণমূলকর্মী সৌমিত্র ভট্টাচার্য।
২টি নৌকোয় মমতা ব্যানার্জি ও অভিষেক ব্যানার্জির মডেল রাখা ছিল। অন্য দুটি নৌকোয় ছিল নতুন বছরের শুভেচ্ছাবার্তা লেখা ব্যানার। আর এসব দেখে চাকদায় গঙ্গায় দুপাড়ে জনতার ঢল নামে। রীতিমতো হুড়োহুড়ি পড়ে যায় এই প্রচার–দৃশ্য দেখার জন্য। নদীর ঘাটে থাকা সাধারণ মানুষকে নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে মিষ্টি খাইয়ে তৃণমূল কর্মীরা রাজ্যে ৪২টি আসনে তঁাদের প্রার্থীদের জয়যুক্ত করার আবেদন জানান। তৃণমূল কর্মী সৌমিত্র ভট্টাচার্য বলেন, ‘‌এই আবেদন মমতা ব্যানার্জির। আমরা তঁার আবেদন আপনাদের কাছে পৌঁছে দিচ্ছি মাত্র। সারা দেশকে বিজেপি ধর্মের ভিত্তিতে টুকরো টুকরো করে দিতে চাইছে। এই বিজেপি যদি ক্ষমতায় থেকে যায়, তা হলে দেশের সর্বনাশ হয়ে যাবে। এই বিষয়ে সকলের আগে আমাদের রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জিই প্রতিবাদে সরব হয়েছেন। পথে নেমেছেন। সারা দেশের বিভিন্ন জায়গায় ছুটে গিয়েছেন। তিনিই আগামিদিনে দেশকে নেতৃত্ব দেবেন। তাই আপনারা ৪২টি আসনে তৃণমূল প্রার্থীদের জেতান।’‌ ৪টি নৌকো সাজিয়ে বর্ণাঢ্য প্রচার দেখে নদীর ঘাটে উৎসাহী মানুষের ভিড় জমে যায়। চাকদা থেকে সুসজ্জিত নৌকো নদী বক্ষ থেকে প্রচার করতে করতে একের পর এক ঘাট পেরিয়ে চূর্ণী নদীতে পৌঁছয়। সেখানেও প্রচার করেন তঁারা।  ‌‌

নতুন বছরের শুভেচ্ছা জানিয়ে নৌকোয় অভিনব প্রচার যুব তৃণমূলের। চাকদার গঙ্গাবক্ষে। সোমবার।

জনপ্রিয়

Back To Top