অমিতাভ বিশ্বাস, তেহট্ট: স্কুল চত্বরে লাগানো গাছের জন্মদিন পালন করা হল কেক কেটে। মিড–ডে মিলের খাবারে ছাত্র–‌ছাত্রীদের দেওয়া হল পায়েস, দই, মিষ্টি। জন্মদিনের উপহারস্বরূপ অভিভাবকরা গাছকে দিলেন জৈব সার, জলের পাত্র ও গোবর। তেহট্ট ১ ব্লক এলাকার ছাতিনা প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ঘটনা। 
স্কুলের প্রধান শিক্ষক শঙ্করকুমার মণ্ডল বলেন, ‌‘‌আমাদের স্কুলের ছাত্র–‌ছাত্রীর সংখ্যা ১৩২ জন। শিক্ষক ৪ জন। স্কুলের পরিবেশ ফেরাতে গত ডিসেম্বর মাসের ৬ তারিখে স্কুলের মধ্যে ২৫টি গাছ লাগিয়ে ছিলাম। এদিন তার এক বছর পূর্ণ হল। গাছ বাঁচাতে অনেকেই অনেক কিছু করে থাকেন। শিক্ষক ও অভিভাবকরা প্রস্তাব দেন পরিবেশ বাঁচানোর তাগিদে অনেক জায়গাতেই তো গাছের বিয়ে দেওয়া হয়। তাই আমরা গাছের জন্মদিন পালন করব, সেই মতো আয়োজন করা হয়েছিল। প্রথমের দিকের ক্লাস করে স্কুলের মিড–ডে মিলে যে সময় ছাত্র–‌ছাত্রীদের খাবার দেওয়া হয়, সেই সময়ে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। প্রত্যেকদিনের মিড–ডে মিলের বরাদ্দ টাকাতে জন্মদিনের অনুষ্ঠান করা সম্ভব নয় বলেই শিক্ষক–শিক্ষিকারা চাঁদা দিয়ে এদিনের মিড–ডে মিলের মেনুতে পায়েস মিষ্টি দই রাখা হয়েছিল।’‌
অভিভাবক অসিত ঘোষ ও সুদীপ্তা সান্যাল বলেন, ‘‌জন্মদিনের অনুষ্ঠানে হাজির থাকতে গেলে কিছু না কিছু উপহার দিতে হয়। স্কুলের পক্ষ থেকে আমন্ত্রণ পেয়ে আমরা গাছের জন্মদিনে জৈব সার, জলের পাত্র, কেউ কেউ গোবর নিয়ে গিয়েছিলাম।’‌ স্কুলের ছাত্র–‌ছাত্রীদের মধ্যে অংশু ঘোষ, মৌমিতা ঘোষ বলে, ‘‌গাছের জন্মদিন পালন করা হবে কি করে প্রথমে আমরা বুঝতে পারিনি। আজ স্কুলে গিয়ে চমকে গিয়েছিলাম, গাছ বাঁচাতে এমন উদ্যোগ। আমরা বড় হয়েও এই দিনের কথা মনে রাখব, চেষ্টা করব এই পথ অনুসরণ করার।’‌‌

গাছের জন্মদিন পালন তেহট্টের  ছাতিনা প্রাথমিক স্কুলে। ছবি: রমণী বিশ্বাস

জনপ্রিয়

Back To Top