গৌতম চক্রবর্তী: চলন্ত লোকাল ট্রেনের ভেন্ডার কামরায় মদ ও গাঁজার আসরের প্রতিবাদ। তার জেরে দুষ্কৃতীরা স্টেশনে ট্রেন দাঁড় করিয়ে হামলা চালাল প্রতিবাদী যাত্রীদের ওপর। একজনকে ট্রেন থেকে নামিয়ে মারধর করে রেললাইনে ছুঁড়ে ফেলা হয়েছে বলেও অভিযোগ। 
পাশাপাশি দেদার লুঠপাট চালানো হয়েছে যাত্রী সামগ্রীতে। মোবাইল ও টাকা খোয়া গেছে। ঘটনায় আহত দুই রেলযাত্রী। ঘটনার প্রতিবাদে ২০ মিনিটের জন্য বারুইপুর স্টেশনে রেল অবরোধ করেন আতঙ্কিত যাত্রীরা। পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক রবি মহাপাত্র জানান, বিষয়টি খতিয়ে দেখে ঘটনার তদন্ত হবে।
বুধবার গভীর রাতে শিয়ালদা দক্ষিণ শাখার মল্লিকপুর স্টেশনের এই ঘটনায় দুষ্কৃতী তাণ্ডবে গুরুতর আহত অভিজিৎ সর্দার বারুইপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি। অপর এক যাত্রী অন্য হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। জানা গেছে, বুধবার রাত ১১টা ৪২ মিনিটের শেষ ডাউন ডায়মন্ড হারবার লোকাল ট্রেনের ভেন্ডার কামরায় কয়েকজন যাত্রী ও ব্যবসায়ী বাড়ি ফিরছিলেন। অন্য স্টেশন থেকে কয়েকজন দুষ্কৃতী ওই কামরায় উঠে মদ ও গাঁজা খাওয়া শুরু করে। সোনারপুরে ওই ট্রেন ঢুকলে ওই দুষ্কৃতীরা এক বয়স্ক যাত্রীর সঙ্গে অভব্য আচরণ শুরু করে। 
তিনি আপত্তি জানিয়ে এগিয়ে এলে কামরার অন্য যাত্রীরা দুষ্কৃতীদের মদ ও গাঁজা খাওয়ার প্রতিবাদ করেন। এতেই চটে গিয়ে ট্রেন দাঁড় করায় তারা। চলে দেদার লুটপাঠ, মারধর ও তাণ্ডব। নির্দিষ্ট অভিযোগের ভিত্তিতে বারুইপুর জিআরপি এবং সোনারপুর জিআরপি যৌথ অভিযান চালিয়ে ঘটনার সঙ্গে যুক্ত ৩ জনকে আটক করেছে। এদিন সকালে সোনারপুর জিআরপি–‌তেও ধামুয়ার বাসিন্দা বাদল গায়েন–‌সহ কয়েকজন লিখিত অভিযোগ করেছেন।

জনপ্রিয়

Back To Top