‌প্রভাত সরকার, ফরাক্ক, ১৩ সেপ্টেম্বর—দোকানের ক্যাশ বাক্স থেকে চারশো টাকা চুরি গেছে। সন্দেহ হয় বছর দশেকের এক বালককে। চুরির ‘‌অপরাধে’‌ তাকে ঝুলিয়ে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠল এক মুড়ি দোকানির বিরুদ্ধে। শুধু তাই নয় সেই মারধরের ভিডিও ফেসবুকে ছাড়ার অভিযোগ উঠল ওই দোকানদারের বিরুদ্ধে। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে তীব্র উত্তেজনা ছড়াল সামশেরগঞ্জে। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সকাল দশটার সময় মুর্শিদাবাদের সামশেরগঞ্জের অন্তরদীপা গ্রামে। অকথ্য অত্যাচারে গুরুতর জখম করিম শেখ। ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত মুড়ি দোকানদার সফিকুল ইসলাম ও তাঁর সঙ্গী নাজিবুল শেখ। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে সামশেরগঞ্জ থানার পুলিস।
 স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বৃহস্পতিবার সকালে অন্তরদীপা গ্রামের বাসিন্দা আনোয়ার হোসেনের ছেলে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্র করিম শেখ বাড়ির সজনে শাক বিক্রির উদ্দেশ্যে মাথায় ডালা নিয়ে চাঁদপুর ব্রিজে যায়। শাক বিক্রির পর সফিকুল ইসলামের মুড়ির দোকানের সামনে দাঁড়িয়ে ছিল করিম। অভিযোগ, সে সময় আচমকা সফিকুল চোর চোর বলে চিৎকার করতে থাকে। করিমকে ধরে মারতে শুরু করে সফিকুল। সেই সময় আশেপাশের সমস্ত দোকানদার ও সফিকুলের সাঙ্গপাঙ্গরা এসে করিমকে ঝুলিয়ে ব্যাপক মারধর শুরু করে। এমনকি পা দুটো ওপরে করে ঝুলিয়ে অকথ্য নির্যাতন করা হয় করিমকে। পাশাপাশি সেই মর্মান্তিক দৃশ্য মোবাইলে ভিডিও করে ফেসবুকে ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে সফিকুলের বিরুদ্ধে। মারের চোটে ঘটনাস্থলেই অজ্ঞান হয়ে পড়ে করিম। চুরির অপরাধে করিমের পরিবারকে জরিমানা করা হয় ৯০০ টাকা। জরিমানার টাকা পাওয়ার পর করিমকে তুলে দেওয়া হয় তার পরিবারের হাতে।
 

জনপ্রিয়

Back To Top