আজকাল ওয়েবডেস্ক: লোকসভা নির্বাচনের পর থেকেই চলছে রাজনৈতিক খুন। তার ধারা এখনও অব্যাহত। ‌ মধ্যরাতে বাড়ির সামনেই দুষ্কৃতীদের গুলিতে খুন হলেন তৃণমূল কাউন্সিলার। ভাইয়ের সামনেই গুলি করে খুন করা হয় তৃণমূল নেতাকে। এই ঘটনায় তোলপাড় বরাকরের মনবেড়িয়া এলাকা।
পুলিস সূত্রে খবর, শনিবার রাতে খাওয়া শেষের পর বাড়ির বাইরে পায়চারি করছিলেন খালিদ। রাত তখন সাড়ে এগারোটা। সেই সময় আসানসোল পৌরনিগমের ৬৬ নম্বর ওয়ার্ডের তৃণমূল কাউন্সিলার মহম্মদ খালিদ খানকে গুলি করে চম্পট দেয় দুষ্কৃতীরা। গুলিবিদ্ধ খালিদকে আসানসোল জেলা হাসপাতালে নিয়ে গেলে তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন চিকিৎসকরা। ঘটনার তদন্তে নেমেছে পুলিস।
দলীয় সূত্রে খবর, ঘটনার খবর পেয়েই হাসপাতালে চলে আসেন আসানসোলের মেয়র জিতেন্দ্র তিওয়ারি, বরো চেয়ারম্যান মহম্মদ গোলাম সাওয়ার–সহ অন্যান্য নেতৃবৃন্দ। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে কুলটি থানার পুলিস। এই খুনের নেপথ্যে কোন ঘটনা রয়েছে তা খতিয়ে দেখছে পুলিস। নিহত কাউন্সিলার খালিদের ভাই আরমানের বক্তব্য থেকে সূত্র খোঁজার চেষ্টা করছে পুলিস। আরমানের দাবি, তাঁর সামনেই দাদাকে গুলি করে দুষ্কৃতীরা। একটি বাইকে বসেছিল তিন দুষ্কৃতী। খালিদকে দেখে বাইক থেকে নেমে আসে দু’‌জন। এরপর তারা প্রথমে খালিদের পায়ে গুলি করে। পরে তার গলায় রিভালবার ঠেকিয়ে গুলি চালানো হয়।
অন্যদিকে আততায়ীরা খালিদদের পূর্ব পরিচিত বলে অনুমান করা হচ্ছে। কিছুদিন আগে খালিদের বাবার ওপরে হামলা চালায় ওই দুষ্কৃতীরাই। ফলে ওই হামলার পেছনে কোনও পারিবারিক শত্রুতা রয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এই ঘটনায় এলাকায় রাস্তা অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেছেন স্থানীয়রা।

জনপ্রিয়

Back To Top