তারিক হাসান: অসহ্য গরমে ঘেমেনেয়ে দিনভর প্রচার করলেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের প্রার্থীরা। গরমের হাত থেকে রেহাই পেতে অনেকেই ঘন ঘন খেলেন ডাবের জল। কেউ কেউ আবার গ্লুকোজ জল, ওআরএসে ভরসা রেখেছিলেন। কিছুক্ষণ চলার পর একটু গাছের ছায়া পেলেই জিরিয়ে নিয়েছেন, খেয়ে নিয়েছেন একটু জল। পথে নেমে মাথায় দিতে হয়েছে টুপি। তাতেও যে খুব একটা রেহাই পাওয়া গেছে তা নয়। কারণ, রবিবার বেলা বাড়ার সঙ্গে ক্রমেই যেন লাফিয়ে লাফিয়ে চড়েছে পারদ। বেড়েছে ঘাম। শরীরের সব শক্তি যেন নিংড়ে নিয়েছে। তারই মধ্যে জেলায় জেলায় চলল প্রার্থীদের প্রচার। রোদের তেজ থেকে বাঁচতে অনেকেই সকালে একটু আগেভাগে প্রচার শেষ করে দিয়েছিলেন। বিকেলে রোদের তেজ কমতে ফের নেমেছিলেন জনসংযোগে। গরমের হাত থেকে রেহাই পেতে রোজকার খাদ্যাভ্যাসেও অনেকে বদল করেছেন।
প্রচারের ফাঁকে রাজ্যের বেশ কয়েক জায়গায় অস্ত্র ছাড়া রামনবমীর মিছিল বের করা হয় তৃণমূল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে। বিজেপি মিছিল করে অস্ত্র নিয়ে। রামনবমীতে হনুমান পুজো করেন রাজ্যের মন্ত্রী আশিস ব্যানার্জি। শিলিগুড়িতে রামনবমীর মিছিলে যোগ দেন রাজ্যের পর্যটনমন্ত্রী গৌতম দেব এবং ক্রীড়া ও যুবকল্যাণ দপ্তরের রাষ্ট্রমন্ত্রী লক্ষ্মীরতন শুক্লা। দক্ষিণ ২৪ পরগনায়ও রামনবমীর মিছিল হয়। উত্তর কলকাতার জোড়াবাগানে মিছিল বের হয় বিধায়ক স্মিতা বক্সির নেতৃত্বে। তিনি বলেন, বাচ্চাদের হাতে অস্ত্র ধরিয়ে নয়, রামনবমীতে মিছিল হবে শান্তিপূর্ণ। হাওড়ায় মিছিল করেন সমবায়মন্ত্রী অরূপ রায়।
দার্জিলিং কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী অমর সিং রাইয়ের সমর্থনে এদিন প্রচারে নামেন রাজ্যের পূর্তমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস। নকশালবাড়িতে রোড শো, বাগডোগরা ও শিবমন্দিরে মিছিল করেন তিনি। অমর সিং রাইয়েরই সমর্থনে মাটিগাড়ার পাথরঘাটায় কর্মিসভায় যোগ দেন উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ। জলপাইগুড়ির তৃণমূল প্রার্থী বিজয়চন্দ্র বর্মনের সমর্থনে শিলিগুড়ির সংযোজিত এলাকায় পথসভা–‌মিছিলে যোগ দেন গৌতম দেব। হেমতাবাদে তৃণমূল প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়ালের সমর্থনে প্রচারে নামেন টলি তারকা অঙ্কুশ, পায়েল সরকার এবং বাংলাদেশের অভিনেতা ফিরদৌস। মালদার চঁাচলে মৌসম নুরের ‌সমর্থনে রোড শো হয়।
উত্তর কলকাতায় প্রচার করেন বিদায়ী সাংসদ সুদীপ ব্যানার্জি। ছিলেন রাজ্যসবার সাংসদ ডাঃ শান্তনু সেন। মালদা দক্ষিণের দলীয় প্রার্থী মোয়াজ্জেম হোসেনের সমর্থনে মুর্শিদাবাদের ধুলিয়ানে প্রচারে নামেন রাজ্যের পুরমন্ত্রী তথা কলকাতার মেয়র ফিরহাদ হাকিম। বাঁকুড়ার ইন্দপুরের গ্রামে সভা করেন মন্ত্রী সুব্রত মুখার্জি। বসিরহাটে নৌকায় চেপে প্রচার করেন তৃণমূল প্রার্থী নুসরত জাহান। নিউ ব্যারাকপুরে হুডখোলা গাড়িতে প্রচার করেন দমদম কেন্দ্রের তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী, বিদায়ী সাংসদ সৌগত রায়। বারুইপুরের পদ্মপুকুরে হুডখোলা টোটোয় চেপে প্রচার করেন সিপিএম প্রার্থী বিকাশরঞ্জন ভট্টাচার্য।‌

জনপ্রিয়

Back To Top