অমিতকুমার ঘোষ,কৃষ্ণনগর: কৃষ্ণনগরে পুলিশ লাইনে আগ্নেয়াস্ত্র থেকে আচমকা গুলি ছিটকে মৃত্যু হল এক মহিলা কনস্টেবলের। ঘটনাটি ঘটেছে বৃহস্পতিবার সকালে কৃষ্ণনগরে নদিয়া পুলিস লাইনে। মৃতার নাম দেবশ্রী ঘোষ (৩২)। সকালে পুলিশকর্মীরা ডিউটিতে যাওয়ার আগে প্রস্তুত হচ্ছিলেন, তখনই এক এনভিএফ কর্মীর রাইফেল থেকে আচমকা গুলি ছিটকে যায়। গুলি লাগে দেবশ্রীর বুকে। তঁাকে মারাত্মক জখম অবস্থায় শক্তিনগরে জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই তঁার মৃত্যু হয়। ওই এনভিএফ কর্মী মিঠুন মিরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে জানিয়েছে নদিয়ার পুলিশ সুপার রূপেশ কুমার। ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে। দেবশ্রীর মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্যে কলকাতায় পাঠানো হয়েছে। 
এদিন সকাল সাড়ে সাতটা নাগাদ এই ঘটনা ঘটে। সাতসকালে এই ঘটনায় পুলিশ লাইনের সকলে হতচকিত হয়ে পড়েন। কৃষ্ণনগর শহরেও এই ঘটনার কথা ছড়িয়ে পড়ায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। দেবশ্রীর বাড়ি নদিয়ার কোতয়ালি থানার দিগনগরে। জানা গেছে, তিনি মাস আটেক আগে পুলিশের চাকরি পেয়েছিলেন। তারপর কয়েকমাস প্রশিক্ষণ নেওয়ার পর নদিয়ার চাপড়া থানায় কাজ করেন। তারপর দিন ১৫ আগে এই পুলিশ লাইনে রিজার্ভ ফোর্স হিসেবে বদলি হয়ে আসেন। দেবশ্রীর ১১ মাসের এক শিশুকন্যা আছে। 
এই বিষয়ে পুলিস সুপার বলন, ‘‌ঘটনাটি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। তবে প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, এটি একটা দুর্ঘটনা। ওই সময়ে মিঠুন মির নামে ওই এনভিএফের রাইফেল থেকে আচমকা গুলি ছিটকে যায়। তার ফলে দেবশ্রী গুলিবিদ্ধ হন। মিঠুন মিরকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।’‌                                     মৃত কনস্টেবল দেবশ্রী ঘোষ  ছবি: প্রতিবেদক

জনপ্রিয়

Back To Top