আজকালের প্রতিবেদন- করোনা মোকাবিলায় টাস্ক ফোর্স গড়ল বিধাননগর পুরনিগম। মেয়র কৃষ্ণা চক্রবর্তী, ডেপুটি মেয়র তাপস চ্যাটার্জি, মেয়র পারিষদ (‌স্বাস্থ্য)‌ প্রণয় রায়–সহ অন্য মেয়র পারিষদেরা এবং যুগ্ম পুর–‌কমিশনার, অর্থ আধিকারিক–সহ অন্য আধিকারিকেরা আছেন বিশেষ দলটিতে। প্রতিদিন বিকেল তিনটেয় পর্যালোচনা–‌বৈঠকে বসবে টাস্ক ফোর্স। পাশাপাশি বিধাননগরের সমস্ত পার্ক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছে। পার্কে সকালে ও বিকেলে হঁাটতে যান বহু মানুষ। বেশিরভাগই প্রবীণ। এছাড়াও আরও অনেকে যান। তাই এই সতর্কতামূলক সিদ্ধান্ত।
বিধাননগর জুড়ে করোনা মোকাবিলায় সচেতনতামূলক প্রচারে নেমেছে পুরনিগম। সোমবার সব ওয়ার্ডে মাইকে প্রচার হয়েছে। লকডাউনের জন্য দোকানদার জিনিসপত্রের দাম বাড়ালে, কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। ৪১ নম্বর ওয়ার্ডে অটোয় করে সচেতনতার প্রচার চালান কাউন্সিলর অনিন্দ্য চ্যাটার্জি। বিধাননগর পুলিশও বিভিন্ন থানা এলাকায় প্রচার করে। পরিস্থিতির মোকাবিলায় কমিশনারেট এলাকা জুড়ে টহল দিচ্ছে পুলিশ। লকডাউন না মানলে ভারতীয় দণ্ডবিধির ২৭১ ধারায় জেনেবুঝে সরকারি নির্দেশ অমান্যের অভিযোগে ৬ মাসের জেল অথবা জরিমানা, অথবা দুই–‌ই (‌জামিনযোগ্য)‌ হতে পারে। ২৬৯ ধারায় অবহেলার জেরে সংক্রামক রোগ ছড়ানোর অভিযোগেও হতে পারে একই শাস্তি।
লকডাউন হলেও বিধাননগর পুরনিগমের স্বাস্থ্য দপ্তর, আবর্জনা সাফাই ও নিকাশি, জল সরবরাহ, বিদ্যুৎ দপ্তর–সহ জরুরি বিভাগগুলি চালু রয়েছে। পুর ভবনের একতলায় ন্যায্য মূল্যের দোকান রৌদ্র‌বৃষ্টি–‌‌ও খোলা। সোমবার করোনা–‌পরিস্থিতি নিয়ে মেয়র পারিষদ ও আধিকারিকদের নিয়ে জরুরি বৈঠক করেন বিধাননগরের মেয়র কৃষ্ণা চক্রবর্তী। কৃষ্ণা বলেন, ‘‌মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জি যেমন নির্দেশ দিয়েছেন, সেইমতো নাগরিকেরা সচেতন হলে এবং দলমত নির্বিশেষে আমরা সবাই যুদ্ধকালীন তৎপরতার কাজ করলে, মোকাবিলা সম্ভব। আতঙ্কের কিছু নেই।’
রবিবার ‘‌জনতা কার্ফু’‌র দিন বেশির ভাগ বাড়িতেই কাজের লোক আসেননি। ব্যাপক সমস্যায় পড়েন প্রবীণেরা। লকডাউনের দিনগুলিতেও তাঁরা আসবেন না বলে জানিয়েছেন। এই পরিস্থিতিতে একাকী প্রবীণদের সাহায্যের জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানান মেয়র। কাউন্সিলরদের খোঁজখবর রাখতে বলা হয়েছে। মেয়র পারিষদ (‌আবর্জনা সাফাই ও নিকাশি)‌ দেবাশিস জানা বলেন, সংক্রমণ এড়াতে এলাকা পরিচ্ছন্ন রাখার কাজ লাগাতার করে চলেছেন তাঁর দপ্তরের কর্মীরা। সতর্কতামূলক যাবতীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top