তুফান মণ্ডল, গোঘাট: স্কুলের সামনের রাস্তায় নিয়মিত দুর্ঘটনা লেগে আছে। এমনকী কিছুদিন আগে দুর্ঘটনায় এক ছাত্রীর মৃত্যুও হয়েছে। তা সত্ত্বেও স্কুলের সামনের রাস্তায় থাকা  ট্রাফিক ব্যবস্থা ও স্পিড ব্রেকার তুলে নেওয়া হয়েছে। এরই প্রতিবাদে এবং আবার ওই জায়গায় ট্রাফিক দেওয়ার দাবিতে শুক্রবার গোঘাটের ভগবতী বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রীরা স্কুলের সামনে আরামবাগ–কামারপুকুর ৭ নং রাজ্য সড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখাল। তাদের সঙ্গে এই বিক্ষোভ কর্মসূচিতে সামিল হলেন স্কুলের কিছু শিক্ষক–শিক্ষিকা ও অভিভাবকরাও। ছাত্রীরা জানিয়েছে, কিছুদিন আগে এই রাস্তাটির সংস্কার ও সম্প্রসারণ হয়েছে। তারপর থেকেই এই রাস্তার ওপর দিয়ে চলাচলকারী যানবাহণের গতি বেড়েছে। রাস্তা পার হয়ে বাসে উঠতে বা সাইকেলে করে স্কুলে যাওয়ার সময় মাঝে মাঝেই দুর্ঘটনা ঘটছে। কখনও বাইকের সঙ্গে, কখনও বা অন্য কোনও গাড়ির সঙ্গে সঙ্ঘর্ষ হচ্ছে। ছোটখাটো দুর্ঘটনা তো লেগেই আছে। তা সত্ত্বেও স্কুলের সামনে থাকা ট্রাফিক সরিয়ে নেওয়া হয়েছে। এর ফলে তাঁরা নিশ্চিন্তে রাস্তা পার হতে পারছে না। বারবার থানাকে জানিয়েও কোনও কাজ হয়নি। তাই এদিন তারা এই অবরোধ করতে বাধ্য হয়। এদিন প্রায় পৌনে একঘণ্টা এই অবরোধ চলে। খবর পেয়ে গোঘাট থানার পুলিস ঘটনাস্থলে পৌঁছয়। পুলিসের পক্ষ থেকে ওই জায়গায় পুনরায় সিভিক ভলান্টিয়ার নিয়োগের আশ্বাস দিলে অবরোধ তুলে নেওয়া হয়। এই প্রসঙ্গে স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা তৈমুন্নেসা বেগম বলেন, ‘প্রতিদিনই ছোটখাটো দুর্ঘটনা ঘটে চলেছে।

স্কুলের সামনে অবরোধ ছাত্রীদের। ছবি:‌ প্রতিবেদক

জনপ্রিয়

Back To Top