গৌতম মণ্ডল, কুলপি: কলকাতা থেকে বেড়াতে এসে হুগলি নদীতে তলিয়ে গেল এক ছাত্র। নিখোঁজ ছাত্রের নাম রাজীব দাস (‌১৭)। সে একাদশ শ্রেণিতে পড়ত। ঘটনাটি ঘটেছে কুলপির নবদ্বীপ এলাকায় হুগলি নদীতে। শনিবার সকাল থেকে নিখোঁজ ছাত্রেকে উদ্ধার করতে কলকাতা পুলিশের বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তর তল্লাশি শুরু করে। বিকেল পর্যন্ত কোনও খোঁজ পাওয়া যায়নি তার।
পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, কলকাতার টালিগঞ্জ এলাকা থেকে ছয় বন্ধু কুলপির নবদ্বীপ এলাকায় বেড়াতে আসে । শুক্রবার বিকালে ছ’‌জনই মদ খেয়ে হুগলি নদীতে নামে। পরে হুগলি নদীর জলের টানে রাজীব তলিয়ে যায়। স্থানীয়রা বাকি পাঁচজনকে উদ্ধার করে। পরে কুলপি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে পাঁচজনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করে। খবর দেওয়া হয় রাজীবের বাড়িতে। শনিবার সকাল থেকে নিখোঁজ ছাত্রের খোঁজে তল্লাশি অভিযান শুরু হয়। কুলপি থানা এবং কলকাতা পুলিশের বিপর্যয় মোকাবিলা দল যৌথভাবে তল্লাশি অভিযান শুরু করে হুগলি নদীতে। রাজীবের পরিবারের লোকজন রাতেই কুলপিতে চলে আসেন। নিখোঁজ ছাত্রের বাবা বাপি দাস বলেন, ‘‌বন্ধুরা মিলে বিড়লা মন্দির দেখার জন্য বাড়ি থেকে বেরিয়েছিল। আমার থেকে একশো টাকাও নিয়েছিল। কিন্তু পরে পুলিশ ফোন করে আমাকে বিষয়টি জানায়। ছেলে মদ খেত কিনা বলতে পারব না। তবে সব বন্ধুরা বলেছে, মদ খেয়েছিল।’‌‌‌

জনপ্রিয়

Back To Top