আজকাল ওয়েবডেস্ক: ‘কৃষক বন্ধু’ প্রকল্পে কৃষকদের ভাতা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য। তৃতীয়বার ক্ষমতায় আসার এক মাসের মাথাতেই মন্ত্রিসভার বৈঠকে ঠিক হয়েছে এতদিন ওই প্রকল্পে কৃষকরা ৬ হাজার টাকা করে পাচ্ছিলেন। তা বেড়ে হবে ১০ হাজার টাকা। উল্লেখ্য, কেন্দ্রের প্রকল্পে বছরে ৬ হাজার টাকা করে আর্থিক সুবিধা পান উপভোক্তা কৃষকরা। 

প্রসঙ্গত, গত বুধবারই মুখ্যমন্ত্রী মমতা ব্যানার্জির সঙ্গে নবান্নে সাক্ষাৎ করতে আসেন কৃষক আন্দোলনের নেতা রাকেশ টিকায়েত। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশ বলছে, গত লোকসভা এবং বিধানসভা ভোটের আগেই কেন্দ্রের পিএম কিসান বনাম রাজ্যের কৃষক বন্ধু প্রকল্পের দরজায় সরগরম হয়ে উঠেছিল রাজ্য-রাজনীতি। একদিকে যেমন কেন্দ্রের অভিযোগ ছিল কেন্দ্রের প্রকল্প থেকে রাজ্য সরকার বঞ্চিত করছে পশ্চিমবঙ্গের মানুষকে। আবার অন্যদিকে রাজ্য সরকারের দাবি ছিল, কৃষক বন্ধু কেন্দ্রের প্রকল্পের থেকে ভাল। যদিও এ বছরে তৃতীয়বারের জন্য ক্ষমতায় আসার পরই পিএম কিসান প্রকল্পে প্রথম কিস্তি পেয়েছেন এরাজ্যের কৃষকেরা। 

কৃষক বন্ধু প্রকল্পের আওতায় থাকা যেসব কৃষকদের জমির পরিমাণ ১ একর বা তার বেশি রয়েছে তারা বছরে দু’বার ৫০০০ টাকা পাবেন। যাদের ১ একরের কম জমি রয়েছে তারা ২০০০-এর পরিবর্তে ৪০০০ টাকা পাবেন। এরই সঙ্গে আগের মতোই কৃষকদের যদি মৃত্যু হয় তাহলে তাদের পরিবারকে ২ লক্ষ টাকা করে আর্থিক ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে।

নানা প্রাকৃতিক দুর্যোগে কৃষকদের বহু ফসল নষ্ট হয়ে গিয়েছে। বছরে বছরে একই ঘটনা ঘটছে। আর তাই তাদের ভাতা বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য। অন্যদিকে, দিল্লিতে চলা কৃষক আন্দোলনকে মাথায় রেখে কৃষক-দরদী রূপে তুলে ধরতে এমনটাই সিদ্ধান্ত নিল রাজ্য।

জনপ্রিয়

Back To Top