সঞ্জয় বিশ্বাস ও অম্লানজ্যোতি ঘোষ, দার্জিলিং ও আলিপুরদুয়ার: টানা ৭ দিনের লকডাউন ছিল দার্জিলিং জেলার পার্বত্য এলাকায়। শনিবারই ছিল তার শেষ দিন। কিন্তু তার আগেই ঘোষণা করা হয়েছে, আরও ৭ দিন লকডাউন চলবে। অর্থাৎ, ৮ আগস্ট পর্যন্ত পাহাড়ে লকডাউন চলবে। করোনা সংক্রমণ বাড়তে থাকায় এবং নতুন করে মৃত্যুর খবর সামনে আসার পরই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে জিটিএ এলাকায়। পাহাড়ে অনীত থাপা জানিয়েছেন, ৮ আগস্ট পর্যন্ত সমস্ত বন্ধ থাকবে পাহাড়ে। দার্জিলিং, কার্শিয়াং, মিরিক, কালিম্পং— এই ৪ পুরসভা এলাকায় বাড়তি সতর্ক প্রশাসন। এখন কোনও পর্যটক যাতে পাহাড়ে না আসেন, সে ব্যাপারেও আবেদন জানানো হয়েছে। এমনকী, স্থানীয়রাও যেন অকারণে বাড়ির বাইরে না বেরোন, সেই প্রচার চালানো হচ্ছে। 
অন্যদিকে, ভুটান সীমান্ত লাগোয়া জয়গাঁ থানা সাময়িকভাবে বন্ধ করে দেওয়া হল। এই থানায় ৩ জন অফিসার ও কয়েকজন সিভিক ভলান্টিয়ারের দেহে একসঙ্গে করোনার উপসর্গ দেখা দেওয়ায় এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। ইতিমধ্যে থানা জীবাণুমুক্ত করা শুরু হয়ে গেছে। আলিপুরদুয়ারে টানা লকডাউন করা যাবে কি না, তা নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক হয়েছে ডুয়ার্স‌কন্যায়। আলিপুরদুয়ারে বিগত ৫ মাসে করোনা–আক্রান্তের সংখ্যা কিছু বেড়েছে। শুক্রবার একদিনেই ৩৯ জন আক্রান্ত হওয়ার খবর আসে। ভারত–ভুটান সীমান্তের জয়গাঁ থানা সাময়িকভাবে এদিন বন্ধ করা হয়। জানা গেছে, থানার তিনজন এসআই পদমর্যাদার আধিকারিক, একাধিক সিভিক ভলান্টিয়ার একসঙ্গে আক্রান্ত। আক্রান্ত হয়েছেন জয়গাঁর স্বাস্থ্যকর্মীরা। আলিপুরদুয়ারের বিধায়ক সৌরভ চক্রবর্তী বলেন, ৪ তারিখ থেকে ৮ তারিখ টানা ৫ দিন লকডাউনের প্রস্তাব রাখা হয়েছে। জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক গিরিশচন্দ্র বেরা বলেন, পুলিশকর্মী, স্বাস্থ্যকর্মীদের একাংশের শরীরে কোভিড পজিটিভ পাওয়া গেছে। তবে আতঙ্কিত হওয়ার কারণ নেই। জলপাইগুড়ি‌ শহরে এক‌ই পরিবারে করোনা পজিটিভ হয়েছেন ৪ জন। শহরের ৭ নম্বর ওয়ার্ডের ভাটিয়া বিল্ডিং এলাকার একটি বাড়িতে করোনা পজিটিভ হওয়ার খবর পেতেই ঘটনা‌স্থলে আসেন জলপাইগুড়ি পুরসভা‌র পরিচালন বোর্ডের সদস্য সৈকত চ্যাটার্জি ও নিপু শাহ। করোনা–আক্রান্ত এলাকা‌কে কন্টেনমেন্ট জোন ঘোষণা করে জীবাণুমুক্ত করার কাজ শুরু হয়।

জনপ্রিয়

Back To Top