আজকালের প্রতিবেদন
লকডাউন ও করোনা পরিস্থিতির মধ্যেও সাতটি ঊরুসন্ধি প্রতিস্থাপন অস্ত্রোপচার সফলভাবে করে নজির গড়ল বিদ্যাসাগর স্টেট জেনারেল হাসপাতাল। রবিবার একথা স্বাস্থ্য দপ্তর তাদের টুইটার পেজে উল্লেখ করে প্রশংসা করেছে। হিপজয়েন্ট বা ঊরুসন্ধির অস্ত্রোপচার সাধারণত মেডিক্যাল কলেজগুলিতে হয়ে থাকে। কিন্তু কোনও স্টেট জেনারেল স্তরের হাসপাতালে হয়েছে বলে খুব একটা শোনা যায় না। আর বেহালার বিদ্যাসাগর স্টেট জেনারেল হাসপাতাল জটিল এই অস্ত্রোপচারের ক্ষেত্রে পর পর সাফল্য পেয়েছে, তাতে খুশি স্বাস্থ্য দপ্তরের শীর্ষকর্তারাও। হাসপাতালের দুই অস্থি শল্য চিকিৎসক সাগর মুখার্জি এবং সুরজিৎ নন্দীর নেতৃত্বেই এই ধরনের অস্ত্রোপচার সফল হচ্ছে। সঙ্গে অ্যানাস্থেশিওলজিস্টদের ভূমিকাও কোনও অংশে কম নয়। রবিবার ডাঃ সাগর মুখার্জি বলেন, ‘এ ধরনের প্রশংসা পেলে কাজে আরও উৎসাহ বাড়ায়। আগামী দিনে যাতে আরও ভালভাবে কাজ করতে পারি সেই চেষ্টাই করব। চিকিৎসক হিসেবে অসহায় মানুষগুলির সেবা করাই মূল লক্ষ্য। হাসপাতালের সুপার ডাঃ রঞ্জিত দাশ, স্বাস্থ্য দপ্তর থেকেও সব সময় সহযোগিতা পাই।’‌ 
রোগী কল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জি সবরকম সুবিধা অসুবিধায় হাসপাতালের পাশে থাকেন।  শুধু ঊরুসন্ধি কিংবা হাঁটু জয়েন্টের প্রতিস্থাপন ছাড়াও সপ্তাহে পাঁচদিন করে হচ্ছে অস্থিসন্ধির অন্যান্য অস্ত্রোপচারও।

জনপ্রিয়

Back To Top