আজকালের প্রতিবেদন
লকডাউনের আগে মুক্তি পাওয়া ছবি নিয়েই খুলছে রাজ্যের বিভিন্ন সিনেমা হল। এদিন রাজ্যে বহু জায়গায় খুলল সিনেমা হল। কলকাতায় খুলে গেল প্রিয়া। আজ খুলবে নন্দন। এই কয়েকটা দিন আগের ছবি চললেও, আগামী বুধবার থেকে সব প্রেক্ষাগৃহেই চলবে পুজোর নতুন বাংলা ছবি। এবার কোনও হিন্দি ছবি নেই। তাই মাল্টিপ্লেক্সগুলোতে বিভিন্ন শো ভাগ করে নেবে নতুন বাংলা ছবিই। এতগুলো বাংলা ছবি, তাহলে কি হাড্ডাহাড্ডি প্রতিযোগিতা চলবে পরস্পরের মধ্যে?‌ প্রযোজক, পরিচালক, হল–‌মালিকরা কেউই এটাকে প্রতিযোগিতা হিসেবে দেখছেন না। তাঁদের বক্তব্য, এই করোনা–‌আবহে কতজন দর্শক আসছেন, সেটাই এখন প্রধান লক্ষ্য। প্রতিটি হলে যথাযথ স্যানিটাইজেশনের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। ৫০ শতাংশ আসনেই দর্শক বসবেন। একটা করে আসন বন্ধ রেখেই দর্শকদের বসানোর ব্যবস্থা হচ্ছে। ইম্পার কোষাধ্যক্ষ শান্তনু রায়চৌধুরি বললেন, ভয় কাটিয়ে সতর্কতা নিয়ে মানুষ যে আসছেন, সেটাই ভরসার কথা। দু’‌একদিন কম দর্শক এলেও পুজোয় নতুন ছবি দেখতে ভিড় হবে বলেই তাঁর আশা। এই আশা প্রযোজক, পরিচালক— সকলের।
এদিকে এসভিএফ এক চমকপ্রদ উপহার ঘোষণা করেছে দর্শকদের জন্য। এদিনই খুলে গেল এসভিএফের ৯টি সিনেমা হল। এর মধ্যে মাল্টিপ্লেক্সও আছে। এক একটা মাল্টিপ্লেক্সের একাধিক হল মিলিয়ে মোট ১৬টি প্রেক্ষাগৃহে ছবি দেখানো শুরু করল এসভিএফ। এই তিনদিন (‌শুক্র, শনি ও রবিবার)‌ এসভিএফ টিকিটের দাম রেখেছে মাত্র ১১ টাকা। প্রেক্ষাগৃহে রোমাঞ্চ ও উচ্ছ্বাস ফিরিয়ে আনতে এটাই দর্শকদের জন্য তাঁদের উপহার। আশা করা যায়, এই ‘‌অফার’‌ শনি ও রবিবার আরও অনেক দর্শককে টেনে আনবে প্রেক্ষাগৃহে।‌

জনপ্রিয়

Back To Top