আজকালের প্রতিবেদন: বালিগঞ্জের বিএড বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িতদের কড়া শাস্তি দাবি করেছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চ্যাটার্জি। সোমবার তিনি বলেন, ‘‌যারা বিএড বিশ্ববিদ্যালয়ের সম্পত্তি ভাঙচুর করল তাদের ক্ষমা নেই। প্রশাসন দ্রুততার সঙ্গে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করুক। আমি এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের কঠোরতম শাস্তি দাবি করছি। শিক্ষাক্ষেত্রে এই ধরনের আচরণকে তীব্র ভাষায় নিন্দা করছি।’‌ 
৮ থেকে ১২ সেপ্টেম্বরের মধ্যে ‌বালিগঞ্জের বিএড বিশ্ববিদ্যালয়ে ভাঙচুরের ঘটনা ঘটে। শনিবার বিষয়টি নজরে আসে। দেখা যায় ডেভিড হেয়ার ক্যাম্পাসের চারতলা বিল্ডিং জুড়ে ভাঙচুর হয়েছে। সার্ভার রুম, মিউজিক রুমের  পাশাপাশি অডিটোরিয়ামের ফলস সিলিংও খুঁড়ে ভাঙা হয়। ভাঙচুরের ধরন দেখে মনে হয় পিছনে আক্রোশ কাজ করেছে। একটা এসি মেশিনও আস্ত রাখা হয়নি। ঘটনার পর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য সোমা ব্যানার্জি বলেন, ‘‌যেভাবে সার্ভার রুম–‌সহ পুরো ক্যাম্পাসটা ভেঙে তছনছ করা হয়েছে তাতে মনে হচ্ছে পরীক্ষা বানচাল করতেই এটা ঘটানো হয়েছে। ঘটনার পেছনে অন্তর্ঘাত থাকতে পারে।’‌ 
এরপরই বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নামে বালিগঞ্জ থানার পুলিশ। সেদিন রাতেই বিশ্বজিৎ মণ্ডল এবং মেঘনাদ মণ্ডল নামে দু’‌জনকে গ্রেপ্তার করা হয়। উদ্ধার হয় চুরি যাওয়া সামগ্রী।‌ পরে আরও একজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

জনপ্রিয়

Back To Top