তরুণ চক্রবর্তী
লোকাল ট্রেনের কোনও খবর নেই। তবে পুজোর আগে বেশ কয়েকটি দূরপাল্লার স্পে‌শ্যাল ট্রেন চলতে পারে।  বৃহস্পতিবার জানা গেছে, শিয়ালদা থেকে দিল্লি এসি স্পেশ্যাল (রাজধানী) এক্সপ্রেস, হাওড়া–‌গুয়াহাটি স্পেশ্যাল (সরাইঘাট) এক্সপ্রেস–‌সহ মোট ৭ জোড়া এক্সপ্রেস ট্রেন নতুন করে যুক্ত হচ্ছে পূর্ব রেলের স্পেশ্যাল ট্রেনের তালিকায়। তবে এখনও বিজ্ঞপ্তি জারি হয়নি।
রেল সূত্রে খবর, উৎসবের মরশুমে ভিড় সামলাতে আসছে আরও একগুচ্ছ স্পেশ্যাল ট্রেন। তবে সবই দূরপাল্লার। লোকাল ট্রেন নিয়ে এখনও কোনও খবর নেই। পূর্ব ও দক্ষিণ–‌পূর্ব রেল সূত্রে খবর, তারা প্রস্তুত। রেল বোর্ডের নির্দেশের অপেক্ষায়। এর আগে দুই রেলেরই জেনারেল ম্যানেজার জানিয়েছিলেন, মেট্রো রেল চালু হওয়ার পর রাজ্য সরকারের সঙ্গে কথা বলে লোকাল ট্রেন চালানো নিয়ে সিদ্ধান্ত নেবেন তঁারা। তবে মেট্রো চালুর ১০ দিন পরও এ বিষয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেননি রেল–কর্তারা। এখনও রাজ্যের সঙ্গে বৈঠকেরও কোনও খবর নেই। জানা গেছে, মেট্রোর ভিড় নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা নিয়ে নিজেদের মধ্যে আলোচনা চালাচ্ছেন দুই রেলের কর্তারাই। নিউ নর্মাল পরিস্থিতিতে ভিড় সামলাতে গ্যালপিং ট্রেনের ওপর বেশি করে গুরুত্ব দিয়ে লোকাল ট্রেনের সম্ভাব্য তালিকাও প্রস্তুত করেছেন তঁারা। কিন্তু এখনও দিল্লির সবুজ–‌সঙ্কেত না আসায় গোটা প্রক্রিয়াই থমকে রয়েছে।
এদিকে শুরু হতে চলেছে উৎসবের মরশুম। সঙ্গে পর্যটনের দরজাও খুলে যাচ্ছে। সিকিমও জানিয়ে দিয়েছে, অক্টোবর থেকে পর্যটকেরা সেখানে স্বাগত। এই অবস্থায় ভিড় সামলাতে একগুচ্ছ স্পেশ্যাল ট্রেন চালাতে চায় পূর্ব রেল। ইতিমধ্যেই তারা রেল বোর্ডের কাছে একাধিক স্পেশ্যাল ট্রেনের সুপারিশ করেছে। জানা গেছে, ইতিমধ্যেই সবুজ–‌সঙ্কেত মিলেছে শিয়ালদা–‌দিল্লি (রাজধানী) স্পেশ্যাল, হাওড়া–‌গুয়াহাটি (সরাইঘাট) স্পেশ্যাল, হাওড়া–‌জামালপুর স্পেশ্যাল, মালদা–‌দিল্লি (সপ্তাহে ৩ দিন), মালদা–‌দিল্লি (সপ্তাহে ৪ দিন) স্পেশ্যাল এক্সপ্রেস ট্রেনের। এ ছাড়াও জামালপুর–‌কিউল এবং জামালপুর–‌সাহেবগঞ্জ প্যাসেঞ্জার ট্রেনেরও অনুমতি মিলেছে। দার্জিলিং মেল থেকে শুরু করে আরও একগুচ্ছ ট্রেন চালাতে চায় পূর্ব রেল। কিন্তু এ বিষয়ে এখনও কোনও সঙ্কেত মেলেনি। জানা গেছে, উৎসবের মরশুমে গোটা দেশে আরও ৮০টি স্পেশ্যাল ট্রেন চালাতে চায় ভারতীয় রেল। দু–‌এক দিনের মধ্যেই ঘোষিত হবে বিশেষ ট্রেনগুলির নির্ঘণ্ট।

জনপ্রিয়

Back To Top