আজকাল ওয়েবডেস্ক:‌ নাইসেডে শুরু হচ্ছে ভারত বায়োটেকের তৈরি কোভিড প্রতিষেধক কো–ভ্যাকসিনের তৃতীয় পর্যায়ের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল। হায়দরাবাদ থেকে ইতিমধ্যেই ১ হাজার টিকা রাজে নিয়ে আসা হয়েছে। অন্তত হাজার জন স্বেচ্ছাসেবকের শরীরে টিকা প্রয়োগ করা হবে, নাইসেড সূত্রে খবর। ট্রায়াল শুরু হচ্ছে ডিসেম্বরের প্রথম সপ্তাহ থেকে। 
নাইসেড অধিকর্তা শান্তা দত্ত বলেন, ‘‌নাইসেডে কো–ভ্যাকসিনের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল হবে, সেই খবর প্রকাশ্যে আসতেই আমাদের কাছে প্রচুর ফোন এসেছে। প্রচুর মানুষ স্বেচ্ছাসেবক হতে চেয়েছেন।’‌ 
কিন্তু ট্রায়ালের জন্য কাদের বাছা হবে?‌ নাইসেড সূত্রে জানা গেছে, প্রথমে একটি ফোন নম্বর দেওয়া হবে। যাঁরা ফোনে যোগাযোগ করবেন, প্রাথমিক বাছাইয়ের পর তাঁদের ডেকে শারীরিক পরীক্ষা হবে। নির্দিষ্ট বয়সসীমার মধ্যে থেকে স্বেচ্ছাসেবকদের বেছে নেওয়া হবে। আগে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন, এমন ব্যক্তি ট্রায়ালে অংশ নিতে পারবেন না। বাদ দেওয়া হবে অন্তঃসত্ত্বাদের। ডায়াবেটিস, হাইপারটেনশনের মতো রোগ নিয়ন্ত্রণে থাকলে স্বেচ্ছাসেবক হওয়া যাবে। একবার স্বেচ্ছাসেবক হলে ১ বছর নিজের ঠিকানা পরিবর্তন করা যাবে না।
নাইসেডের তরফে জানানো হয়েছে, ২৮ দিনের ব্যবধানে ‌মোট দু’‌টি ডোজ দেওয়া হবে। গোটা প্রক্রিয়া শেষ হতে ফেব্রুয়ারির শেষ সপ্তাহ। সূত্রের দাবি, ট্রায়ালে অংশ নিতে পারেন কলকাতার বিদায়ী মেয়র ফিরহাদ হাকিম ও বিদায়ী ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষ। 

জনপ্রিয়

Back To Top